Breaking News
বিদ্যুৎ চালিত ইন কুবেটর
বিদ্যুৎ চালিত ইন কুবেটর

বিদ্যুৎ চালিত ইনকিউবেটর বানানোর নিয়ম

প্রথমে আমরা ইনকিউবেটরের বক্স বানাবো, এর আগে আমরা বক্সের কার্যকারিতা সমদ্ধে  জানবো।
ইনকিউবেটরের বক্স মুলত তাপ এবং আর্দ্রতা বজায় রাখাতে সাহায্য করে। বক্স যত তাপ কুপরিবাহী হবে জ্বলানী খরচ তত বাঁচবে।

কাজেই বক্সটি এমন কিছু দিয়ে বানাতে হবে যেটা ভিষণ তাপ কুপরিবাহী, বক্সের মান ভালোর উপর নির্ভর করে কতক্ষণ বিদ্যুৎ না থাকলে ভ্রুনের কেমন ক্ষতি হবে। বক্স ভালো হলে ভিতরে তাপ অনেক্ষণ আটকে থাকে তাই একটু দীর্ঘ সময় বিদ্যুৎ না থাকলেও ভ্রুনের মৃত্যুর অতটা সম্ভবনা থাকেনা।
প্রথমে আপনি সাধারণ পার্টেক্সের উপর কর্কশিটের আস্তরণ দিয়ে ছোট্ট একটি বক্স বানাবেন।
বক্সের ভিতর একটা বাল্ব এবং একটা কুলিং ফ্যন লাগাবেন। বাল্বটা আস্তে আস্তে তাপ বৃদ্ধি করবে কুলিং ফ্যন সেই তাপকে ছড়িয়ে দেবে।
এখন একটা টেম্পারেচা কন্ট্রোলার লাগান, বক্সের ভিতরে একটা হাইগ্রোমিটার এমন ভাবে লাগান যাতে হাইগ্রোমিটারে আর্দ্রতা টা বাহির থেকে দেখা যায়।


হাইগ্রোমিটারের পরিবর্তে বাজার থেকে HTC লাগালেও চলবে। এখন ইনকিবেটরের ভিতরে ছোট দুইটা বাটি রাখার জায়গা রাখুন, যদি কোনো কারনেআর্দ্রতা আদ্রতা বেড়ে যায় তখন একটা বাটিতে শুকনো চুন বা বালি দিবেন। আবার কখনো যদি আর্দ্রতা  কমে যায় তবে চুন বা বালি রাখার বাটি সরে পানির একটা বাটি দিন।
এতে করে আর্দ্রতা  তৈরি বা শোষণ হবে, ইনকিউবেটরে ডিম দেবার পরে দিনে ৩/৪বার ঘুরিয়ে দিতে হবে।


ইনকিউবেটর কিভাবে কাজ করবে সেটা দেখবো


ইনকিউবেটরে ভিতরে যদি ৩৭.৭ডিগ্রী সেঃ তাপ মাত্রা বজায় রাখাহয়, ৬৫%থেকে ৭০% আর্দ্রতা রাখা হয়,তাপমাত্রা এবং আদ্রতা সকল ডিমে নিশ্চিত করা হয়, এবং সময় মত ডিম গুলিকে ঘুরিয়ে দেয়া হয়, তবে ডিমের ভিতর ভ্রুন সঠিকভাবে বেড়ে উঠবে এবং ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে।


এবার ইনকিউবেটরের যন্ত্র কিভাবে কাজ করছে সেটা দেখবো


ইনকিউবেটরে তাপ তৈরি করছে বাল্ব।
ইনকিউবেটরের ভিতরের তাপ নিয়ন্ত্রণ করছে কন্ট্রোলার।
ইনকিউবেটরের ভিতরের আর্দ্রতা  দেখা যাচ্ছে হাইগ্রোমিটারে বা আর্দ্রতা মাপকে,প্রয়োজন অনুযয়ী মেনুয়ালি আদ্রতা কন্ট্রোল করা হচ্ছে বালি এবং পানি দিয়ে।
ইনকিউবেটরের আর্দ্রতা  এবং তাপমাত্রা ছড়িয়ে দিচ্ছে কুলিং ফ্যন।
দিনে ৩/৪বার হাত দিয়ে ডিম গুলি ঘুরিয়ে দিলেই কাজ শেষ।


ইনকিউবেটরে প্রধান শর্ত গুলি হচ্ছে তাপমাত্রা পর্যাপ্ত রাখা,  আর্দ্রতা সঠিক রখা, এবং ডিমে ঘুরিয়ে দেয়া

এই কাজ গুলো সঠিকভাবে করলেই, ডিমে ফুটে বাচ্চা বের হবে। কাজ গুলি ম্যানুয়েলি না করে যদি কোনো যন্ত্রের সাহয্যে করতে চান তখন  সেটাকে , ভীষণ মজবুত হতে হবে, যাতে যন্ত্রটা দীর্ঘদিন  চলতে পারে।

লেখকঃআব্দুল ওহাব(০১৭৪৬৬০৯২২০)

Please follow and like us:

About admin

Check Also

ইনকিউবেটর চালানোর নিয়ম

ইনকিউবেটর চালানোর ব্যাপারে লক্ষণীয় বিষয়গুলো

ইনকিউবেটর বানানো অথবা কেনার পরে প্রধান কাজ হলো ইনকিউবেটর টি সঠিকভাবে চালানো। এটি চালানো সহজ, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!