Breaking News

খামারের জন্য যারা ছাগলের বাচ্চা সংগ্রহ করবেন তাদের জন্য করনীয়ঃ

খামারের জন্য যারা  ছাগলের বাচ্চা সংগ্রহ করবেন তাদের জন্য করনীয়ঃ

১। সুস্থ সবল হাই গ্রোথ বাচ্চা যে গুলি ভুষি কাঁচা ঘাস পাতা খাওয়া আরম্ভ করছে সেই বাচ্চা গুলি কিনুন।

২। বিক্রেতার সাথে খোলামেলা আলাপ করে জেনে নিন পিপিআর কৃমিনাশক দিয়েছে কিনা। যদি না দেয় নিজ উদ্দোগে ঠান্ডা আবহাওয়ার ভ্যাকসিন গুলো দিয়ে নিন সাথে ভিটামিন ও দিতে পারেন।

৩। দীর্ঘ রাস্তা ভ্রমনের পর এদের পিপাসা বেড়ে যাবে তাই পরিমিত স্যালাইন/পানি সাথে কাঠাল পাতা ও অল্প পরিমানে পানি দিয়ে মাখামাখা করে দানাদার জাতীয় খাবার দিন।

৪। বাচ্চা সংগ্রহের ২/৩ দিন পর পানির সাথে জীবানুনাশক (চিকিৎসক এর পরামর্শে) দিয়ে গোসল করান।

৫। বাচ্চার জন্য খাবারের একটি রুটিন তৈরী করুন বিশেষ করে ছাগী বাচ্চাদের ফ্যাট জাতীয় খাবার পরিমানে কম দেওয়াই ভালো।

৬। বাচ্চা কেনার আগে জেনে/দেখে কিনুন এর উত্তরসূরী বিশেষ করে মায়ের বøাড লাইনটা কেমন ছিলো। সাধারনত ১৪ থেকে ১৬ মাসে যে ছাগীগুলো ২ বার বাচ্চা দেয় সেগুলো ফার্মের জন্য আদর্শ। তবে ইন্ডিয়ান বড় জাতের ১০০% পিওর বøাড লাইনের ছাগল ১৬ থেকে ১৮ মাসে ২ বার বাচ্চা দিবে। প্রথম বার ১-২ টি বাচ্চা পরে এর পরিমান বাড়বে। দেশীয় জাতের ক্ষেত্রে ২+ আর ইন্ডিয়ান গুলোর ক্ষেত্রে ১-২-৩ হতে পারে তবে ইন্ডিয়ান গুলোতে ১-২ এর পরিমানটা বেশী।

৭। আপনার খামারে১টি ভালো জাতের পাঁঠা রাখুন। নিজের ফার্মের বাচ্চা উৎপাদনের পাশাপাশি বাড়ন্তÍছাগী বাচ্চা গুলি পাঠার সংস্পর্শে থাকলে ৬ থেকে ৯। মাসেই হিটে চলে আসবে। কারন পাঠার গায়ের ঘ্রান ওদের আকৃষ্ট করে।

৮। প্রজননের উন্নতির জন্য আপনার ছাগীকে বছরে দুইবার এ ডি ই খাওয়ান অথবা শরীরে পুশ করেন। গর্ভবতি ছাগীকে { (গর্ভের ১ম মাসে ১-১.৫ মিলি ভিটামিন এ.ডি.ই এবং গর্ভের শেষ দুই সপ্তাহে ১-১.৫ মিলি ৪৮ ঘন্টা পরপর ইঞ্জেকসন দিতে হবে)।

ডাঃ এ, এইচ. এম. সাঈদুল হক

 

#বাচ্চা ছাগলের খাদ্যঃ ব্ল্যাক বেঙ্গল ছাগল সাধারণত একাধিক বাচ্চা প্রসব করে থাকে। তাই সবগুলো বাচ্চা যেন সমানভাবে প্রয়োজন মত দুধ খেতে পায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ঠিকমত খেয়াল না করলে সবল বাচ্চাগুলো দুধ ইচ্ছামত খেয়ে ফেলে এজন্য দেখা যায় দুর্বল বাচ্চাগুলো দুধ খেতে না পেয়ে অপুষ্টিতে ভুগে অকালে মারা যায়। এজন্য বাচ্চাদেরকে মায়ের দুধ খাওয়ানোর ব্যাপারে খুব সজাগ থাকতে হবে।

#বাচ্চা ছাগলের দানাদার খাদ্য মিশ্রণের নমুনাঃ চালভাঙ্গা- ২৫%+ খেসারি ভাংগা-২৫%+গমের ভুষি -২৫%+সয়াবিন খৈল- ১৬%+ প্রোটিন কনসেন্টেট – ২%+সয়াবিন তেল-১%+চিটাগুড়-৪%+ এবং লবন-১%+ ভিটামিন- মিনারেল প্রিমিক্স-০.৫%+ ডি.সি. পি- ০.৫% ।

বাচ্চা ছাগলের দানাদারখাবারের পরিমানঃ- দৈনিক বাচ্চা ছাগলের দৈহিক ওজনের ১% দানাদারখাবার যথেষ্ট।

Please follow and like us:

About admin

Check Also

ছাগলের নিউমোনিয়া

ছাগলের নিউমোনিয়া  সঠিক সময় চিকিৎসা না দিলে ছাগল টিকানো কঠিন হয়ে পরে। লক্ষণ গুলো নিম্ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!