রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসা(ব্রয়লার)

কিভাবে সহজে রোগ নির্ণয় করা যায় এবং চিকিৎসা করা যায়।

কিভাবে সহজে রোগ নির্ণয় করা যায় এবং চিকিৎসা করা যায়ঃ রোগ নির্ণিয়ের পদ্ধতিঃ ২টি বিষয় মনে রাখতে হবে ১।পোল্ট্রিতে প্যাথোগ্নোমিনিক লেশন নাই ২।পোস্ট মর্টেমে বিভিন্ন ধরণের লেশন পাওয়া যায় কিন্তু সব গুলো এক সাথে পাওয়া যাবে না।তাছাড়া এমন তেমন লেসন বা লক্ষণ গুলো পাওয়া যাবে এসব আশা করা যাবে না।মনে ...

Read More »

মুুরগির শরীরের পরিবর্তন এবং কারণ

মুুরগির শরীরের পরিবর্তন এবং কারণ 1. Growth poor(chick) aflatoxicosis infectious synovitis candidiasis vit A & B deficiencies 2 Emaciation( wasting of body muscle) chronic enteritis poor or off feeding nutritional deficiency 3. muscular tremors or twiching IBD avian encephalitis( head & neck muscle) listeriosis mouldy corn disease 4. paralysis Mareks ...

Read More »

লিটার ভিজে যাবার কারণ(এন্টারোকক্কসাস,রোটা,এস্টো,পারবো,এভিয়ান নেফ্রাইটিস,রিও,এডেনো ভাইরাস।

এন্টারোকক্কাসঃ সেকেন্ডারী ইনফেকশন হিসাবে বেশি হয়।মেইনলি ব্রয়লারে হয়. ইদানিং ব্যাপক হারে ইয়ামাজিং ডিজিজ হিসাবে দেখা যাচ্ছে।এটি গ্রাম পজিটিভ।নরমালী ক্ষুদ্রান্ত্রে থাকে। এটি একিউট,পার একিউট,ক্রনিক হিসাবে দেখা যায়। এন্টারোকক্কাস সিকোরাম বয়স্ক ব্রয়লারে অস্টিমাইয়োলাইটিস,স্পন্ডাইলাইটিস,আর্থাইটিস করে। এটি বাতাস,মুখ ও স্কিন দিয়ে ঢুকে। একিউট বা সাব একিউট কেসে সেপ্টিসেমিয়া ও এন্ডোকার্টাইটিস করে।এমন কি ব্রেইন নেক্রোসিস ...

Read More »

কোন ডিজিজে গ্রোয়িং পিরিয়ডেই ব্যাপক হারে মর্টালিটি করে।খাবারের সাথে জড়িত রোগ।

কোন ডিজিজে গ্রোয়িং পিরিয়ডেই ব্যাপক হারে মর্টালিটি করে।খাবারের সাথে জড়িত রোগ।কোন রোগে ব্রয়লার মারা যায়।কোন ডিজিজে সব চেয়ে বেশি অর্গান আক্রান্ত হয়।মর্টালিটি ও মর্বিডিটি সমান হয় কোন রোগে।মর্টালিটি কেন হয়?। গ্রোয়িং পিরিয়ডেই ব্যাপক হারে মর্টালিটি করে কিন্তু প্রডাকশনে কম হয় বা হয় না তা নিচে দেয়া হল ই-কলাই আই বি ...

Read More »

মুরগির ফার্মে জীবাণূ কতদিন বেঁচে থাকে এবং কোন জীবাণূ ক্যারিয়ার হিসাবে কাজ করে।

মুরগির ফার্মে জীবাণূ কতদিন বেঁচে থাকে? জীবাণূ একেক লোকেশন/বস্তুতে একেক সময় থাকে যেমন মুরগিতে এক রকম,লিটারে অন্য রকম,মাটিতে,পানিতে,বাতাসে,পালকে,ডিমে,ডিমের খোসায় বিভিন্ন রকম। মুরগি বিক্রির পর ফার্মে জীবাণূ কতদিন বেঁচে থাকে তা নিন্মে দেয়া হল ১.গাম্বোরু ফার্মে কয়েক মাস থাকে ক্যারিয়ার হিসাবে কাজ করে না কিন্তু  আক্রান্ত  সপ্তাহ খানেক ভাইরাস ছড়ায়। ২।কক্সিডিওসিস। ...

Read More »

মাল্টিকসাল রেস্পিরেটরী ডিজিজ(MRD) এবং সাবক্লিনিকেল ডিজিজ

মাল্টিকসাল(Multicausal) রেস্পিরেটরী ডিজিজ(MRD) কারণ ১।শ্বাসনালীর বিভিন্ন জীবাণূর ইন্টারএকশন মাইকোপ্লাজমা গ্যালিনেরাম বা সাইনোভি সিংগেল হলে সাবক্লিনিকেল বা মাইল্ড ফর্মে থাকে কিন্তু আই বি বা রানিক্ষেত আসলে মাইকোপ্লাজমার তীব্রতা অনেক বেড়ে যায়। হেমোফিলাস এভিব্যাক্টেরিয়াম এবং মাইকোপ্লাজমা গ্যালিনেরাম সিনারজেস্টিক হিসাবে কাজ করে। আই বি বা এন ডি,মাইকোপ্লাজমা এবং ই- কলাই মিলে তীব্র আকার ...

Read More »

কমার্শিয়াল ব্রয়লারের রোগ এবং ভ্যাক্সিন শিডিউল

কমার্শিয়াল ব্রয়লারের রোগ এবং ভ্যাক্সিন শিডিউল ব্রয়লারের রোগ সমূহ ১।আই বি এইচ ২।রিও ৩।এসাইটিস ৪।নেক্রোটিক এন্টারাইটিস ৫।সাডেন ডেথ সিনড্রম ৬।রান্টিং স্টান্টিং সিনড্রম ৭।গাউট ৮।অর্নিথোব্যাক্টেরিয়াম তাইনোট্রাকিয়ালি ব্রয়লারের অন্যান্য রোগঃ ৮।গাম্বোরু ৯।মাইকোপ্লাজমা ১০।রানিক্ষেত ১১।আই বি ১২।এ আই ১৩।ই -কলাই ১৪।নিউমোনিয়া ১৫।কক্সিডিওসিস ১৬।মাইকোটক্সিকোসিস ১৭।চিকেন ইনফেকশাস এনিমিয়া ১৮।হিট স্টোক ১৯।গ্রেংগ্রেনাস ডার্মাটাইটিস ব্রয়লারের ভ্যাক্সিন শিডিউল ...

Read More »

ইন্ট্রাসেলোলার ভাইরাস এবং ব্যাক্টেরিয়া গুলোর নাম,ভাইরাস কিভাবে এবং কোথায় কাজ করে(প্যাথোজেনেসিস)।

ভাইরাস সব ভাইরাস ইন্টাসেলোলার এন ডি এ আই আই বি পক্স এডেনোভাইরাস ব্যাক্টেরিয়া নিচের গুলো এক্সটাসেলোলার পাস্টোরেলা মাল্টোসিডা ই -কলাই এভিব্যাক্টেরিয়া প্যারাগ্যালিনেরাম স্টেপ্টো এবং স্টেফাইলোকক্কাস নিচের গুলো ইন্টাসেলোলার কক্সিডিওসিস সালমোনেলা মাইকোপ্লাজমা লিস্টেরিয়া শিগেলা(Shigella) ব্রুসেলা Coxiella Chlamydia Yersinea ইমোনোসাপ্রেসিভ ভাইরাস কিভাবে এবং কোথায় কাজ করে(প্যাথোজেনেসিস)। (immunosuppressive virus) Virus.        ...

Read More »

ব্রয়লারে রোগ তত্তঃ মুরগির মৃত্যুর সময় নির্ণয়ঃ কোন রোগে বেশি অর্গান আক্রান্ত হয়।

diseases cycle in broiler (ব্রয়লারে রোগ তত্তঃ) খুসখুস কাশি ৭ দিন তার পর ঠিক হয়ে যায়। ১২ দিনে মাইল্ড সি আর ডি যা এন্টিবায়োটিকে ভাল হয়ে যায়। ১৪ দিনে মাইল্ড আই বি ডি সাথে আই বি এইচ  আর ১৮-২০ দিনে আমাশয় হয়। ২৫ দিনে ভাইরাস  আক্রমণ করে ফলে ১-২% মারা ...

Read More »

মর্টালিটি বা মর্বিডিটির উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন রোগের প্রোগ্নোসিস এবং চিকিৎসা

মর্টালিটি বা মর্বিডিটির উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন রোগের প্রোগ্নোসিস এবং চিকিৎসা ১।ইনডিভিজুয়াল মানে যেগুলো আক্তান্ত হলে অন্যগুলো আক্তান্ত হবার সম্বাবনা কম বা নাই। আফ্লাটক্সিকোসিসঃ স্পোরাডিক কেস মানে যারা আক্রান্ত সেগুলোই মারা যাবে ।তাই বেশি ভয় পাবার কিছু নাই।তবে খাবারে যদি ব্যাপক হারে মাইকোটক্সিন থাকে তাহল একিউ কেসে অনেক মর্টালিটি হতে ...

Read More »

পোল্ট্রির ডাইজেস্টিভ সিস্টেমের রোগ

পোল্ট্রির পরিপাক তন্ত্রের রোগ বমি কারণ সোর ক্রপ(Sour Crop) ক্রপ ইম্প্যাকশন  (Crop Impaction) মিউকয়েড প্রভেন্টিকলাইয়াটিস(Mucoid  proventriculitis) গিজার্ড ইরোশন   (Gizzard Erosion) ক্যান্ডডিয়াসিস (Candidiasis) ট্রাইকোমোনিয়াসিস (Trichomoniasis) ডায়রিয়া(Diarrhoea) কারণ কৃমি কিডনির রোগ পেঠের টিউমার লিভারের রোগ এন্টারাইটিস এন্টারাইটিসের কারণ,কেন পাতলা পায়খানা হয় বা লিটার খারাপ হয়। ১।খাদ্য সঠিকভাবে হজম না হলে ২।রানিক্ষেত,এ আই ...

Read More »

পোল্ট্রির প্রজননতন্ত্র ও পরিপাক তন্ত্রের বিভিন্ন রোগ

কিছু রোগ আছে যা সরাসরি ওভারী(ডিম্বাশয়) এবং ওভিডাক্টের(ডিম্বনালী) উপর প্রভাব পড়ে । যেমন সালমোনেলা পুলোরাম(Pullorum) আই বি রানিক্ষেত ই ডি এস আবার কিছু আছে যা( স্পোরাডিক )মাঝে মাঝে হয় ওভারী ও ওভিডাক্টের ক্ষতি করে ,এমন কি মুরগি মারা যেতে পারে। যেমন সিস্টিক রাইট ওভিডাক্ট মুরগির ২টি ওভিডাক্ট থাকে(ডান ও বাম) ...

Read More »

এন্টারাইটিস/ডায়রিয়ার কারণ এবং প্রকারভেদ

Enteritis is the inflammation of intestinal mucosa which is characterized by diarrhoea followed by dehydration. এন্টারাইটিস বিভিন্ন ধরণের হয় যেমন সিম্পল এন্টারাইটিসঃ(ননস্পেসিফিক) কারণ খাবার পরিবর্তন করলে পুস্টিহীনতা নস্ট খাবার ঠান্ডা ভয় ট্রমা চিকিৎসা ঃকারণ বের করে চিকিৎসা দিতে হবে সাথে স্যালাইন ব্যাক্টেরিয়াল কলিব্যাসিলোসিস সাল্মোনেলোসিস কলেরা স্ট্যাফাইলোক্কোসিস নেক্রোটিক এন্টারাইটিস ভিব্রিওনিক হেপাটাইটিস সিউডোমোনাস ...

Read More »

খামারীদের চাওয়া আর ডাক্তারদের পরামর্শ কেমন হওয়া উচিত

একজন খামারী বিভিন্ন কারণে ডাক্তারকে  প্রশ্ন করতে পারে তবে তা কখন ,কি ,কিভাবে করা উচিত সেগুলো জানা দরকার  ।খামারী এবং ডাক্তার উভয়কে বিষয় গুলি ক্লিয়ার থাকা  দরকার ।প্রশ্ন করা এবং উত্তর দেয়ার মাঝে একটু সমস্যা আছে।উভয় পক্ষকে সচেতন হওয়া দরকার,আগে জানতে হবে কি কি বিষয় নিয়ে সমস্যা হয়। নিচে আলোচনা করা ...

Read More »

পোল্ট্রির কোন রোগ,কত সালে, কোন দেশে, কে আবিস্কার করেছে।

আমরা যারা পোল্ট্রি প্যাক্টিস করি তাদের অবশ্যই বিভিন্ন রোগ কে কোথায় আবিস্কার করেছে তা জানা দরকার।নিচে দেয়া আছে। ভাইরাল রোগ. ১।রানিক্ষেত ঃ ১৯২৬ সালে ইন্দোনেসিয়ায় FC kraneveld নামে এক বিজ্ঞানী। ১৯২৭ সালে ইংল্যান্ডের  নিউ ক্যাসেল নামক জায়গায় TM Doyle নামক বিজ্ঞানী। ১৯২৮ সালে ইন্ডিয়াতে রানিক্ষেত নামক গ্রামে  Edwards নামে এক ব্যাক্তি। ...

Read More »

কোন রোগ ভাল হতে কত দিন লাগে এবং কোন রোগ একবার হলে ফার্ম থেকে সহজে দূর করা যায় না

কোন রোগ ভাল হতে কত দিন লাগে

কোন রোগ ভাল হতে কত দিন লাগে এবং কোন রোগ একবার হলে ফার্ম থেকে সহজে দূর করা যায় না কোন রোগ ভাল হতে কত দিন লাগে(মিক্স ইনফেকশন হলে কিছু কম বেশি হবে) ১। এ ই(এনসেফালাইটিস)      লেয়ারে হলে ১৪দিনের মধ্যে প্রডাকশন ঠিক হয়ে যায়.বাচ্চাতে হলে ৭দিনের মধ্যে ঠি হয়ে ...

Read More »

বিভিন্ন রোগের সুপ্তিকাল(ইনকিউবেশন পিরিয়ড)

রোগের ইনকোবেশন পিরিয়ড

রোগের সুপ্তিকাল রোগ.                        ইনকিউবেশন পিরিয়ড ১.এ আই                                ১.৫-৩দিন ২.আই বি                              ...

Read More »

মুরগির ডিম কমার ধরণ এবং কারণ এবং কোন রোগ কোন কোন অঞ্চলে হয়:

মুরগির ডিম কমার ধরণ এবং কোন অঞ্চলে কোন রোগ হয়

মুরগির ডিম কমার ধরণ এবং কারণ: ক. হঠাৎ কমে কারণ ১.ই ডি এস ২.রানিক্ষেত ৩.এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা( এইচ পি এ আই ) ৪.ব্রংকাইটিস ৫.ফাউল কলেরা ৬.পক্স ৭.এভিয়ান এনসেফালোমাইলাইটিস খ.ধীরে ধীরে কমে কারণ ১.মাইকোটক্সিন টক্সিন বিশেষ করে আফ্লাটক্সিকোসিস ২.ব্যবস্থাপনা(খাবার এবং আলো ও পানি সঠিকভাবে না দিলে) ৩.উকুন বা কৃমি ৪.এভিয়ান লিউকোসিস ৫. ...

Read More »

কোন সিজনে কোন রোগ হয় এবং কোন পি এইচে কোন রোগ হয়

কোন সিজনে কোন রোগ হয়

কোন সিজনে কোন রোগ বেশি হয়: কিছু  রোগ যে কোন সময় হতে পারে তবে কিছু কিছু রোগ একটা নির্দিস্ট সময় বেশি হয়। পুলোরাম,গ্র্যাংগ্রেনাস ডার্মাটাইটিস এবং টাইফয়েড গরমকালে বেশি হয়। ফ্যাটি লিভার সিন্ডম গরমে বেশি হয়। হিট স্টোক গরমে হয়। কৃমি গরমে বেশি হয় পক্স শীতের শেষে,বসন্ত ও বর্ষাকালে হয়। মাইকোটক্সিকোসিস ...

Read More »

ব্রয়লারের স্পন্ডাইলাইটিস বা কিঙ্কি ব্যাক ডিজিজ এবং উইং রট /ব্লু উইং/জিডি

 1.ব্রয়লার স্পন্ডাইলাইটিস বা কিঙ্কি ব্যাক ডিজিজ লক্ষণঃ হক জয়েন্টের উপর বসে পাখা দিয়ে হাঁটার চেস্টা করে। পেছনের দিকে হাঁটে মরটালিটি ৫% ইউনিফর্মিটি খারাপ হয়। কারণঃ ভেন্টিলেশন ও লিটার ভাল না। অধিক ঘন ম্যানেজম্যান্টাল ডিজিজ যা স্টেফাইলোক্ককাস ও ই -কলাই দিয়ে হয়। ই- কলাই সেড থেকে মুরগির ভারটিব্রাটাতে যায় এবং ব্রয়লার ...

Read More »
Translate »
error: Content is protected !!