Breaking News
গরুর জন্য ইস্ট
গরুর জন্য ইস্ট

Bakery Yeast VS Feed grade Yeast 🙂 ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়ার জন্য কোনটি ভাল হবে

Bakery Yeast VS Feed grade Yeast 🙂
ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়ার জন্য কোনটি ভাল হবে? কোনটি কিনবো আমরা, কোনটি সাশ্রয়ী ক্যাটল খামারির জন্য?

বাজারে ২ ধরনের ইস্ট পাওয়া যায়। একটি বেকারি ইস্ট যেটা রুটি বেকারি খাবার আইটেমে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আর অন্যটি ক্যাটেল (গরু/ছাগল) জন্য ফিড গ্রেড ইস্ট যা বিদেশ থেকে আমদানীকৃত।

কোনটা ভাল হবে, কোনটার খরচ কম হবে এসব বিশ্লেষন করার জন্য আমি কিছুটা হিসাব নিকাশের আশ্রয় প্রশ্রয় নেবো। কোন সাইন্টিফিক শব্দ বা ব্যাখ্যায় যাবো না সকলের বোঝার সুবিধার্থে।

এক কথায় বলবো, বেকারি ইস্ট এবং ফিড গ্রেড ইস্ট দুটো একই জিনিস। দুটোতেই সমান উপকার, সমান কাজ করবে। একেবারেই আলাদা কিছু নয়৷
তবে হ্যা, পার্থক্য আছে মাত্র দুটি জায়গায় তা হলো ইস্টের ব্যবহার বিধি ও দামের মধ্যে। আমরা আজকে বেকারি ও ফিড গ্রেড ইস্টের দামের পার্থক্য ও ব্যবহার বিধি নিয়ে আলোচনা করবো।

#ব্যবহার_বিধিঃ
👉(বেকারি ইস্ট)

বেকারি ইস্ট লাইভ থাকেনা, তাই বেকারি ঈস্টকে চিনি বা চিটাগুড় মিশ্রিত করে ইস্টকে লাইভ করে দানা খাদ্য বা ভুট্টাকে ১০ থেকে ১২ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে খাবারকে ফার্মেন্টেড করে গরুকে খাওয়াতে হয়। এখানে ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়াটা ঘটে গরুর খাবারের পেটে ঢোকার আগে হয়।

👉(ফিড গ্রেড ইস্ট)
ফিড গ্রেড ইস্ট লাইভ করা থাকে, তাই এটাকে চিনি গুড় মিশিয়ে লাইভ করার দরকার হয় না এবং দান খাদ্য বা ভুট্টাকে ১০ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখার ও কোন দরকার নেই।

শুকনা সকল প্রকার দানাদার খাবারের সাথে মিশিয়ে সরাসরি বা একদিন রেখেও পরেরদিন গরুকে খাওয়ানো যায়৷ গরুর রুমেন বা পাকস্থলী একটি ফার্মেন্টেশন ট্যাংক। এখানে ফিড গ্রেড ইস্ট গরুর পেটে যাবার পরে পেটের ভেতরে গিয়ে ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়া ঘটায়। আধুনিক বিশ্ব আমেরিকা, ব্রাজিল, ইউরোপে এভাবেই চলে।

#খরচের_হিসাব
১০০০ কেজি দানাদার খাবারে
ইস্টের দামের তারতম্যগত চিত্র
👉(বেকারি ইস্ট)




এককেজি বেকারি ইস্টের দাম ৩০০ টাকা,
১০০০ কেজি দানাদার খাদ্যে বেকারি ইস্ট লাগে ৪ কেজি, এক কেজি চিনির দাম ৫০ টাকা

১০০০ কেজি ভুট্টাকে ফার্মেন্টেড করতে খরচ হবেঃ ইস্ট ১২০০ টাকা + চিনি ৫ কেজি ২৫০ টাকা
মোট খরচঃ ১৪৫০/- টাকা৷

(বেকারি ইস্টে চিনি/গুড়ের পরিমানে কমবেশী হলে নিজেদের জ্ঞ্যান সমেত হিসাব করে নিবেন)

👉(ফিডগ্রেড ইস্ট)
আমদানীকৃত ফিড গ্রেড ইস্ট পাওয়া যায় দুই দেশের। ১) আমেরিকা ২) ব্রাজিল

আমেরিকার ইস্ট দাম এক কেজি ৯০০ টাকা
ব্রাজিলের ইস্টের দাম এক কেজি ৪৫০ টাকা

১০০০ কেজি দানা খাদ্য বা ভুট্টা ফার্মেন্টেড করতে আমেরিকার ইস্ট লাগবে ৫০০ গ্রাম, অন্যদিকে ব্রাজিলের ইস্ট লাগবে ১.৫ কেজি।

তাহলে ১০০০ কেজি দানা খাদ্যে আমেরিকার ইস্ট ব্যবহার করলে খরচ আসবে ৪৫০ টাকা, অন্যদিকে ব্রাজিলেরটা ব্যবহার করলে খরচ আসবে ৬৭৫ টাকা।

👉তাহলে উপরের চিত্র থেকে দেখা যাচ্ছে ১০০০ কেজি দানা খাদ্য বা ভুট্টা ফার্মেন্টেড করতে বেকারি ইস্ট ব্যবহার করলে একজন খামারির খরচ পড়ছে ১৪৫০ টাকা। আমেরিকার ফিডগ্রেড ইস্ট ব্যবহার করলে খরচ আসবে ৪৫০ টাকা এবং ব্রাজিলের ফিড গ্রেশ ইস্ট ব্যবহার করলে খরচ আসছে ৬৭৫ টাকা।

সিদ্ধ্যান্ত এখন আপনাদের নিতে হবে কোনটা আপনার জন্য যথোপযুক্ত।

যিনি মনে করবেন চিনি গুড় মিশায়ে ১০/১২ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে ফার্মেন্টেশন করতে ইচ্ছুক তিনি বেকারি ঈস্ট কিনবে। আর যিনি মনে করবেন চিনি গুড় মেশানো ঝামেলা এবং দ্রুত অল্প সময়ে কাজ করতে চান তিনি ফিড গ্রেড ইস্ট ব্যবহার করবে।

সবই ভাল, যার যেটা ইচ্ছে ব্যবহার করতে পারে, কোন সমস্যা নেই। মানুষের জীবনে অর্থ ও সময় দুটোই খুব মূল্যবান। আশাকরি খরচ ও ব্যবহার বিধি নিয়ে কোন ভাইয়ের আর ইস্ট নিয়ে কনফিউশান থাকবেনা।

Culture process of yeast in laboratory or bekary and culture process of yeast in Bovine ruminant animal is absolutly very different. ল্যাবরেটরিতে বেকারী ইস্ট ফার্মেন্টেশন প্রসেস এবং বভাইন এনিমেল যাদের রুমেনে ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়া ঘটে দুটো সম্পূর্ন আলাদা ব্যাপার।

গরুর পাকস্থলী ইটসেল্ফ একটি ফার্মেন্টেশন ট্যাংক যেখানে তাপমাত্রা থাকে ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং ট্রিলিয়ন বিলিয়ন মাইক্রোবস ব্যাকটেরিয়া, প্রটোজোয়া, ফুংগি খাদ্যকে ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে হজম প্রক্রিয়া ঘটাতে সাহায্য করে৷

দানাদার খাদ্য যেমন ভুট্টা, ধান অনেক সময় সহজে হজম হয়না এবং দেখা যায় ৩০% মত মলের সাথে বের হয়ে যায়। ফলে কনসানট্রেটেড ফিড থেকে যে পরিমান কাংখিত ফল পাবার কথা অনেক সময় আমরা না পেয়ে হতাশ হই। ইস্ট এই ৩০% হজম না হওয়া দানাদার খাদ্যকে ফার্মেন্টেড করে হজম করতে সাহায্য করে।

গরুর পেটে পাকস্থলীর ভেতরে লবনের সাথে ইস্টের ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়া ব্যাহত হবার কোন সুযোগ নেই। লবনে আছে সোডিয়াম ক্লোরাইড। গরুর পেটে যে বিলিয়ন বিলিয়ন মাইক্রোবস আছে সেগুলো নানারকম খাদ্য উপাদান থেকে আসা ভিটামিন, মিনারেল, জিংক, প্রোটিন, সোডিয়াম ক্লোরাইডকে যার যার ক্যারেক্টারিসটিক ও ক্যাপাসিটি অনুযায়ী এবজর্ব করার চেস্টা করে। তাই গরুর পাকস্থলীতে সল্টের সাথে ইস্টের সরাসরি এফেক্ট খুব কমই হবে। এছাড়া ফিডগ্রেড ইস্টের স্ট্রেইন ও তৈরী হয়েছে আলাদা৷

আমরা বেকারী ইস্টের সাথে রুমিন্যান্ট এনিমেলের জন্য তৈরী ইস্ট এক করে উল্টো পাল্টা বকছি। ল্যাবরেটরি বা বেকারিতে লবন ও ইস্ট সরাসরি মিশ্রন ঘটে। তথাপি রুটি কেক বানাতে লবন ব্যবহার করা হয় একটি নির্দিষ্ট মাত্রায়। অত্যাধিক লবনের ব্যবহার ইস্টের গাজন প্রক্রিয়াকে ধীরগতি করে দেয়। গরুর পাকস্থলীর ভেতরের প্রক্রিয়ার সাথে রুটি কেক বানানোর প্রক্রিয়া কখনই এক করা যাবেনা বোকার মত।

বরং বেকারী ইস্ট যারা ১০/১২ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে গরুকে দিচ্ছেন এটা বেশ খানিকটা ঝুকিপূর্ন কারন এইভাবে গাজন প্রক্রিয়ায় খাদ্যে টক্সিন বা বিষক্রিয়া হতে পারে দীর্ঘ সময়ে দানা খাদ্য ভিজিয়ে রাখার কারনে।

যারা বোঝেনা গরুর পেট ইটসেল্ফ একটি ফার্মেন্টেশন ট্যাংক, যেখানে ইস্ট ছাড়াই ফার্মেন্টেশন কাজ সম্পন্ন হয় সেখানে ফিড গ্রেড ইস্ট সাথে চিটাগুড় ও পরিমানমত লবন ব্যবহারকে যারা বলছে গাজন বা ফার্মেন্টেশন প্রক্রিয়া ব্যাহত করবে তারা নেহায়েত সরল বোকা।

শাহ ইমরান(স্বপ্ন ডেইরী)

Please follow and like us:

About admin

Check Also

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা:

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা: গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!