Breaking News

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মাংস খাওয়া দেশের তালিকা

পৃথিবীর মোট বার্ষিক মাংসের এক চতুর্থাংশই খায় শুধু উত্তর আমেরিকায়। পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি মাংস খাওয়ার তালিকায় শীর্ষ ১০ টি দেশের মধ্যে নেই কোন মুসলিম দেশ। সবচেয়ে বেশি মাংস খাওয়ার তালিকায় শীর্ষে আছে তাইওয়ান, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, ইসরাইল, ফ্রান্স , স্পেনের মতো দেশ এবং এই সবগুলো দেশই ইহুদি ও খ্রিস্টানপ্রধান দেশ।

আমেরিকায় মাথাপিছু বার্ষিক মাংস খাওয়া হয় ১২৮ কেজি, তাইওয়ানে ১৩৭ কেজি, অস্ট্রেলিয়া ১১১.৫ কেজি , নিউজিল্যান্ড মাথাপিছু ১০৬কেজি, আর্জেন্টিনা ৯৮ কেজি, ইসরাইল ৯৬ কেজি/বছর , ভারত ৫.৪ কেজি, নেপাল ৯.৯ কেজি।

যেখানে মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে মাথাপিছু বার্ষিক মাংস খাই ৪.৫ কেজি , পাকিস্তানে ১৪.৭ কেজি এবং ইন্দোনেশিয়ায় ১১.৬ কেজি ।

মানবতার কাণ্ডারি ইউরোপ আমেরিকায় কি পরিমাণ পশু জবাই করা হয়। তার পরও কিছু মানুষের কাছে কুরবানীই যত সমস্যা!

গরুর মাংসের হিসাবঃ

OECD Agriculture Statistics 2018’র তথ্য মতেঃ

পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি গরুর মাংস খাওয়ার তালিকায় শীর্ষে আছে আমেরিকা, চীন , ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, রাশিয়ার মতো খ্রিস্টান প্রধান দেশ।ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আমেরিকা ২০১৮ সালে ১২২৯৭ হাজার টন গরুর মাংস খেয়েছে, চীন খেয়েছে ৮০৬৪ হাজার টন , ব্রাজিল ৭৯১০ হাজার টন আর আর্জেন্টিনা ২৭৫৫ হাজার টন।

মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে পাকিস্তান, মিশর। ২০১৮ সালে পাকিস্তান গরুর মাংস খেয়েছে ১৮০০ হাজার টন ,মিশর প্রায় ১২৫০ হাজার টন।

তারপরও কিছু সেকু গোষ্ঠীর কাছে মুসলিমরাই যেন খাওয়ার জন্য সবচেয়ে বেশি প্রাণী হত্যা করে??আর ভারতের মানুষ মনে করে মুসলিমরাই যেন সবচেয়ে বেশি গরু হত্যা করা।

No insights to show

Please follow and like us:

About admin

Check Also

বিভিন্ন রোগের পিকে উঠার টাইম এবং পিক পিরিয়ড কতদিন।পিকের টাইম জানার গুরুত্ব কি

বিভিন্ন রোগের পিকে উঠার টাইম এবং পিক পিরিয়ড। গুরুত্বঃকতদিনে রোগটি পিকে উঠে এবং কতদিন থাকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »