Breaking News
Book 1

বইঃসহজে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা (লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালী)।বইটি কেমন জানতে ভিজিট করুন এবং সূচী দেখুন।

সহজে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা (লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালী)

ডা মো সোহরাব হুসান (ট্রেইনার এবং পোল্ট্রি কনসাল ট্যান্ট).বইয়ের ধারণা পেতে নিচের ভূমিকা এবং সূচীগুলো দেখতে পারেন।

 ভূমিকাঃ

ফিল্ডে কাজ করতে গিয়ে কিছু বিষয় অনুভব করেছি,ফিল্ডে দরকারী ও আপডেট প্র্যাক্টিকেল শিক্ষার দরকার যা প্রতিদিন কাজে লাগে কিন্তু আমি যা শিখে আসছি তা দিয়ে ডাক্তারী করতে পারছিনা। যা পড়ে আসছি তা কাজে লাগছেনা। ফিল্ডের জন্য সবই আলাদা মনে হচ্ছে।এসব সমস্যার সমাধান এখানে অতি সহজে বাস্তব ভিত্তিক উপস্থাপন করা হয়েছে যা ১০০% কাজে লাগবে।চাকরিতে জয়েন করার পর আবার নতুন করে বিভিন্ন বই,লিটারেচার,ইন্টার্নেট,ইউটিউব,ফেসবুক থেকে অল্প অল্প করে শিখা অনেক সময় সাপেক্ষ ও কস্টকর।তাই সব জায়গার সব বিষয়কে সহজ করে,এক সাথে,মনে রাখার মত করে হাতের কাছে রাখার জন্য একটা বই খুব প্রয়োজন।দীর্ঘ ১০ বছর ধরে ফিল্ডে পোল্ট্রির সব সেক্টরে কাজ ও পড়াশুনা করে যা অর্জন করেছি তারই প্রতিফলন সহজে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা (লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালী) নামক বইটি।বই এর মূল বৈশিস্ট্য হল এটা লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালীর এ টু জেট আছে তাই অন্য কিছু খোঁজার দরকার হবে না।ইন্টার্নীতে এটা কাছে থাকলে পোল্ট্রিতে দক্ষ হতে কস্ট হবে না।এমনকি ক্যাম্পাসের ছাত্র- ছাত্রী ও শিক্ষক সবারই বইটি কাজে লাগবে।বইটি শিক্ষকরা ছাত্রদের পড়ালে ফিল্ডে গিয়ে কস্ট করতে হবেনা।এই বই এ আপডেট ডিজিজ ডায়াগ্নোসিস,চিকিৎসা ও প্রোগ্নোসিস,এন্টিবায়োটিক ও মেডিসিন  ইত্যাদি সহজ ও ব্যতিক্রম ভাবে সন্নিবেশ করা হয়েছে। শত শত ছবি দিয়ে সাজানো হয়েছে যাতে অল্প সময়ে সহজে মনে রাখা যায়।মুখস্থ করতে হবেনা,মনে থাকবে ইনশাল্লাহ।

নোটঃ বইয়ে কারেকশন করে প্রিন্ট দেয়া হয়েছে।

সূচীপত্রঃ

টপিকস                           আর্টিকেল

১। পোল্ট্রি ফিজিওলোজি         ৬টি

২।রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা          ১০২টি

(লেয়ার,ব্রয়লার,সোনালী)

৩।ব্রয়লারের বাকী রোগসমূহ    ১৯টি.

৪।অর্গান দেখে রোগের ধারণা   ১৯টি

৫।এন্টিবায়োটিকস                   ১৫টি

৬।মেডিসিনস                            ২০টি 

৭।টিপস                                      ২৬টি

টোটাল আর্টিকেল                     ২০৭টি

মোট পাতা                                ২৩৬টি

ছবি  প্রায়                                 ৫০০টি

বইয়ে শব্দ  আছে প্রায় ১লাখ ১৭হাজার।

১।পোল্ট্রি ফিজিওলোজি

১।পোল্ট্রি কাকে বলে,ব্রিড কি,স্ট্রেইন কি,লেয়ার,ব্রয়লার কাকে বলে,উদাহরণ সহ।

২.মুরগির এনাটমি এবং ফিজিওলজি ।

৩।পোল্ট্রির রিপ্রডাক্টিভ,স্কেলেটাল,নার্ভাস,ইউরিনারী ও কার্ডিওভাস্কোলার সিস্টেম।

৪।পোল্ট্রির রেস্পিরেটরী ও মাস্কুলার সিস্টেম নিয়ে আলোচনা।

৫।  সুস্থ লিভার সুস্থ মুরগি এবং লিভারের সাথে জড়িত রোগ গুলির নাম।

৬।একটি লেয়ারের আত্নজীবনী

২।রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা

১।প্রাথমিক আলোচনা ও গুরুত্বপূর্ণ টিপস।

২। পোল্ট্রি ডিজিজ ডায়াগ্নোসিসের টিপস।

৩ ।কিভাবে সহজে রোগ নির্ণয় করা যায় এবং চিকি।ৎসা করা যায়।

৪।ডিফারেন্সিয়াল ডায়াগ্নোসিস কিভাবে করবো।

৫।কিভাবে ভাল প্রেস্ক্রিপশন বা চিকিৎসা করা যায়।

৬।রোগ নির্ণয় করতে কতগুলো প্রশ্নের উত্তর জানা অবশ্য কর্তব্য

৭।পোল্ট্রির  প্রজননতন্ত্রের বিভিন্ন রোগ।

৮।পোল্ট্রির ডাইজেস্টিভ সিস্টেমের রোগ।

৯। শ্বাসতন্ত্র,ইউরিনারী,কার্ডিওভাস্কুলার ,স্কেলেটাল  ও স্নায়ুতন্ত্রের রোগ।

১০। রোগের চিকিৎসা করা ঠিকনা।চিকিৎসা করতে হবে রোগের অবস্থা বা ধরণের।

১১। চিকিৎসা দিয়েও কেন ভাল রিজাল্ট পাওয়া যায়না।

১২।ইন্টাসেলোলার ভাইরাস ও ব্যাক্টেরিয়া, ইমোনোসাপ্রেসিভ ভাইরাস কোথায় কাজ করে।

১৩।চিকস(বাচ্চা) মর্টালিটির কারণ ও প্রতিকার।

১৪।লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালীর কি কি রোগ হয় এবং ফিল্ডে কোন রোগ কত পার্সেন্ট পাওয়া যায়।

১৫।কোন ডিজিজে গ্রোয়িং পিরিয়ডেই ব্যাপক হারে মর্টালিটি করে।কোন রোগে ব্রয়লার মারা যায়।গুরুত্বপূর্ন কিছু টিপস।

১৬। নরমাল ও প্যাথোলজিকেল অর্গান,ফিসিস,সুস্থ ও অসুস্থ মুরগি।

১৭।গাম্বোরুঃপ্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

১৮।রানিক্ষেতঃকেন হয়, প্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

১৯।লো প্যথোজেনিক এ আইঃ প্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

২০। হাইপ্যাথোজেনি এ আইঃপ্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

২১। মুরগির ব্রংকাইটিস এর কারণ,লক্ষণ,পোস্ট মর্টেম,প্রতিরোধ এবং চিকিৎসা।

২২।মুরগির মারেক্স কি,কিভাবে ছড়ায়,প্রকারভেদ,কেন হয়,লক্ষণ,চিকিৎসা,প্রতিরোধ।

২৩।এভিয়ান লিউকোসিস,লক্ষণ,পোস্ট মর্টেম,মেরেক্সের সাথে পার্থক্য

২৪।এভিয়ান এনসেফালোমাইলাইটিসঃবিস্তারিত।

২৫।ই ডি এসএপিডিমিওলজি,কারণ,কিভাবে ছড়ায়,কিভাবে রোগ তৈরি করে,লক্ষ্‌ণ,পোস্টমর্টে্‌ম,চিকিৎসা।

 ২৬।ইনফেকশাস ল্যারিংগো্ট্রাকিয়াইটিস।

২৭।পোস্ট ডিজিজ কন্ডিশন/সিকোলি(Sequelae)

২৮।মাইকোপ্লাজমোসিস মুরগির নীরবঘাতকঃকেন হয়,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,চিকিৎসা,নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিকার।

২৯। মুরগির সি আর ডি,সি সি আর ডি,আর ডি সি কি কেন হয়ঃবিস্তারিত।

৩০।কলিব্যাসিলোসিসঃ( ই- কলাই)কেন হয়,কিভাবে হয়,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,চিকিৎসা,প্রতিরোধ।

৩১।ইয়কসেক ইনফেকশন(নাভিকাচা/অম্ফালাইটিস।

৩২। ফাউল টাইফয়েড(সালমোনেলোসিস) প্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

৩৩। পুলোরাম রোগঃ(সালমোনেলোসিস)পুলোরাম রোগ। প্রকারভেদ, লক্ষণ,লেসন,টাইটার, প্রতিরোধ।

৩৪। মুরগির করাইজাঃকেন হয়,লক্ষণ,চিকিৎসা ও প্রতিরোধ।

৩৫।মুরগির কলেরাবিস্তারিতঃটাইফয়েড ও এ আই থেকে কিভাবে আলাদা করা যায়ঃ

৩৬।নেক্রোটিক এন্টারাইটিসঃবিস্তারিত।

৩৭।স্টেফাইলোকক্কোসিস(ফিমোরাল হেড নেক্রোসিস)

৩৮।কৃমি এবং কৃমিনাশকঃবিস্তারিত।

৩৯।টর্টিকোলিস এর কারণ,সিস্টেমিক ও লোকাল ইনফেকশন।

৪০।ফ্যাটি লিভার হেমোরেজিক সিনড্রম কেনহয়,কারণ,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,চিকিৎসা,প্রতিরোধ।

৪১।ব্রুডার নিউমোনিয়া এবং ক্যান্ডিডিয়াসিস(Sour crop) কেন হয়,কিভাবে   হয়,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,চিকিৎসা,প্রতিরোধ।

৪২। মোরগ মুরগিতে নরম বিস্টা কেন হয়,বিভিন্ন ধরণের পায়খানার বর্ণনা।বিস্তারিত।

৪৩।এগ পেরিটোনাইটিস এবং এগ বাউন্ড কি,কেন হয়।

৪৪।এন্টারাইটিস(ডায়রিয়ার) কারণ এবং প্রকারভেদ।

৪৫।কনজাঙ্কটিভাইটিস কি,,পোল্ট্রির জুনোটিক ডিজিজ গুলোর নাম।

৪৬। কি কি কারণে ডিমের রং,খোসা এবং আকার পরিবর্তন হয়ঃএ টু জুট।

৪৭।মুরগির পক্স,এপিডিমিওলোজ,বিস্তার,প্রকারভেদ,লক্ষণ,চিকিৎসা এবং প্রতিরোধ ও টিকাঃবিস্তারিত

৪৮।স্পোরাডিক কেস(ডিজিজ) নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা

৪৯। মুরগির আমাশয়ঃকক্সিডিয়ার স্পেশাল বৈশিষ্ট্য,লক্ষণ,প্রতিরোধ ও চিকিৎসা

৫০।মাল্টিকসাল(Multicausal) রেস্পিরেটরী ডিজিজ(MRD) কি,কেন হয়।

৫১ #খাবার ছিটানোর কারণঃবিস্তা্রিত আলোচনা

৫২।হার্ডলিং,পেঠে পানি জমার কারণ,লালা পড়ে কেন,কোন রোগে পানি বেশি খায়,মাথা উচু করে বা হা করে নিশ্বাস নেয়ার কারণ।

৫৩।কোন রোগে কত % ডিম কমে,বিভিন্ন রোগের মর্টালিটি ও মর্বিডিটি% কত।

৫৪।  মুরগির ঠোকরাঠুকরি(cannabolism) এবং প্রলাপ্স এর কারণ ও সমাধান

৫৫।মুরগির পায়খানা বিভিন্ন কালারে্র হবার কারণ

৫৬।মুরগির ফার্মে জীবাণূ কতদিন বেঁচে থাকে?

৫৭। মুরগির প্যারাসাইট গুলির নাম এবং কোথায় আক্রমণ করে।

৫৮।পোল্ট্রি খাদ্যে মাইকোটক্সিন:বিস্তারিত আলোচনা।

৫৯।খামারীকে কেমন হতে হবে।

৬০।কোন রোগে /সমস্যায় মুরগি অসুস্থ হয় না কিন্তু মারা যায়ঃঅসুস্থ হলেও অল্প হয়।

৬১।কোন রোগে মুরগি মরেনা কিন্তু খামারী মরে।

৬২। এভিয়ান ইনফ্লোয়েঞ্জাঃ ভাইরাসের বৈশিষ্ট্য,কিভাবে ছড়ায়,প্রকারভেদ,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,চিকিৎসা,প্রতিরোধ

৬৩। মুরগির শরীরের পরিবর্তন এবং কারণ

৬৪।পোল্ট্রির কোন রোগ,কত সালে,কোন দেশে,কে আবিস্কার করেছেন।

৬৬।বয়স অনুযায়ী বিভিন্ন রোগ।

৬৭।লেয়ারে এন্টিবায়োটিক দিলে কি ডিম কমে যেতে পারে? কমলে কিভাবে।

৬৮।খামারীকে নিঃস্ব করে দেয়ার মত কিছু রোগ(মর্টালিটি/ক্ষতির উপর ভিত্তি করে।

 ৬৯।মেডিসিনের সহজ হিসাব করবো কিভাবে,কোন টা কয় বেলা দিতে হয়।

৭০।পাকনা ডিলার এবং খামারীদের শায়েস্তা করবেন কিভাবে।

৭১।কোন রোগে সাথে সাথে চিকিৎসা করতে হয়।

৭২। মিক্স ইনফেকশন,টাইটার কত প্রকার ও কি কি, ল্যাব টেস্ট,কখন কি করতে হবে।

৭৩।মর্টালিটি বা মর্বিডিটির উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন রোগের প্রোগ্নোসিস এবং চিকিৎসা

৭৪।পোল্ট্রির প্রডাকশন কমে যাবার কারণ,বিস্তারিত।

৭৫।একেবারেই ডিম পারেনা কেন,ডিম কম পাড়ে কেন,শুরু থেকেই ডিম কম পাড়ে কেন।

 একেবারেই ডিম পাড়ে না কেন?

৭৬।মুরগির মোল্ট্রিং কেন হয়,কখন হয়,কিভাবে হয়,প্রডাকশন কমে যায় কেন।

৭৭।প্রেস্ক্রিপশন করতে যে বিষয় গুলো লাগতে ্পারে।

৭৮।একজন ডাক্তারকে যে যে বিষয়ের উপর দক্ষতা থাকা ভাল এবং কিভাবে  আপনি সেই দক্ষতা পেতে পারেন।

৭৯। ।প্র্যাক্টিস শুরু করার সময় কিভাবে ভয় দূর করবেন এবং কিভাবে শুরু করতে হবে।

৮০।কোন রোগের চিকিৎসা কখন করতে হয়।

৮১। এগ পেরিটোনাইটিস,হেমোরেজ ও লিভারে নেক্রীটিক ফোকাই এর কারণ।

৮২।কিছু না বুঝা গেলে  ৯ বা ৫ আছে না,যত দোষ নন্দ ঘোষ।

৩।কোন সিজনে কোন রোগ বেশি হয়।

৮৪। দ্রুত ডিজিজ ডায়াগ্নোসিস ও চিকিৎসার গুরুত্ব।

৮৫।বিভিন্ন রোগের সুপ্তিকাল।

৮৬।মুরগির ডিম কমার ধরণ এবং কারণ।

৮৭।স্পিসিস অনুযায়ী ডিজিজ)

৮৮,ভি আই পি টিপস।

৮৯। কিভাবে কনফার্ম ডায়াগ্নোসিস করবো।

৯০।প্রেসক্রিপশন/প্রোগ্নোসিস কেমন হবে তা কিসের উপর নির্ভর করে

৯১। মুরগি কোন রোগে অসুস্থ হয় না কিন্তু মারা যায়।

৯২।রোগ ছড়ানোর ধরন।

৯৩।কোন রোগের কারণে মুরগি তেমন মারা যায় না।গেলেও অল্প মারা যায়।

৯৪।কোন রোগ আমরা পড়ে আসছি কিন্তু ফিল্ডে পাওয়া যায়না/কম পাওয়া যায়।

৯৫।খাবারের সাথে জড়িত রোগ সমূহ।

৯৬।মেজর ভু্ল ডায়াগ্নোসিস গুলো কি কি।

৯৭। রোগ না হলেও ডাক্তাররা প্রেস্ক্রিপশনে কিছু প্রডাক্টস লিখে থাকে কারণ কি, কি আইটেম লিখতে হতে পারে।

৯৮।কোন সময় খামারীরা ভুল করে মুরগি বিক্রি করে দেয়।

৯৯।ডায়াগ্নোসিসের ক্ষেত্রে কোন রোগে কোন অর্গানে কত% লেসন পাওয়া যায়।

 ১০০।রোগের অবস্থা/স্ট্রেজ কত প্রকার।আর এন  এ ও ডি এন এ ভাইরাস এর নাম,ভার্টিকেল ডিজিজ সহ

১০১।মুরগি সুস্থ হওয়া বলতে আমরা কি বুঝি

০২।সোনালীর রোগ সমূহ

৩।ব্রয়লারের বাকী রোগ সমূহ


১।এন্টেরিক ডিজিজ কমপ্লেক্স।

।(ব্রয়লারে রোগ তত্ত্ব।

৩।এভিয়ান নেফ্রাইটিস ভাইরাস( এন্টারোভাইরাস)

 ৪।ওরনিথোব্যাক্টিরিয়াম রাইনোট্রাকিয়ালি (O R) এবং ক্রিপ্টোস্পোরিডিয়াম(Cryptosporidium)

 ৫। সোয়ালেন হেড সিন্ড্রোম এবং ডিহাইড্রেশন।

৬। ব্রয়লারের সাডেন ডেথ সিনড্রম।

 ৭। মুরগির গাউট নিয়ে বিস্তারিত।

 ৮।ব্রয়লারের রান্টিং স্টান্টিং সিনড্রম,কেন হয়,কারণ,লক্ষণ,পোস্টমর্টেম,প্রতিরোধ ৯।মুরগির পেঠে পানি জমা(এসাইটিস):বিস্তারিত।

১০।মুরগি ছোট বড় হবার কারণ এবং মুরগি লিটার খায় কেন।

 ১১।  লিটার বর্ন ডিজিজ কি,কেন হয়।

১২।গ্রেংগ্রিনাস ডার্মাটাইটিস (Gangrenous Dermatitis

১৩।চিকেন ইনফেকশাস এনিমিয়া,এপিডিমিওলোজি,লক্ষণ,প্যাথোজেনেসিস,পোস্টমর্টেম,প্রতিরো

১৪।এডিনো ভাইরাস নিয়ে বিস্তারিত।

১৫।ব্রয়লারের ইনক্লোশনবডি হেপাটাইটিস(আই বি এইচ):বিস্তারিত।

৬।ব্রয়লা্র এবং লেয়ারের লেমনেসের (খোড়ানোর)কারণ বিস্তারিত।

 ১৭।স্পন্ডাইলাইটিস কি,কেন হয়।

১৮।ব্রয়লারের মর্বিডিটি দেখে রোগের ধারণা।

১৯।লিটার ভিজে যায় কেন,বিস্তারিত।.

৪।অর্গান দেখে রোগের ধারণা

১।  এবডোমেন ও এবডোমিনাল ফ্যাট দেখে রোগের ধারণা।

  ২।অন্ত্রনালী (Intestine)দেখে রোগের ধারণা।

৩।গিজার্ড ও পিত্তথলি দেখে রোগের ধারণা।

৪   প্রভেন্টিকোলাস(proventriculous) দেখে রোগের ধারণা।

৫।লিভার দেখে  রোগের ধারণা

 ৬  প্লিন ( Spleen) দেখে রোগের ধারণা

৭। কিডনি দেখে মুরগির রোগের ধারনা।

৮।ট্রাকিয়া এবং ব্রংকাই দেখে রোগের ধারণা।

৯।ফুসফুস এবং এয়ারস্যাক দেখে রোগের ধারণা।

১০।ওভারী দেখে রোগ নির্ণয়১১।বার্সা দেখে রোগের ধারনা।

১২।মুরগির চোখ দেখে রোগের ধারণা।

১৩।হার্ট দেখে রোগের ধারণা।

১৪।ঝুটি,ফেইস,মাথা,ইসোফেগাস,ক্রপ এবং ওয়াটল দেখে মুরগির রোগের ধারণা।

১৫। শ্বাসতন্ত্রের লক্ষণ দেখে রোগের ধারণা।

১৬।হাড়,জয়েন্ট,পা ও পালক দেখে রোগের ধারণা।

 ১৭। স্নায়ুতন্ত্র(প্যারালাইসিস) দেখে রোগের ধারণা।

 ১৮। গ্রন্থি ও ক্লোয়েকা/ভেন্ট দেখে রোগের ধারণা।

 ১৯।চামড়া(skin) ও মাংস দেখে রোগের ধারণা।

৫।এন্টিবায়োটিকস

১।এন্টিবায়োটিক কি,প্রকারভেদ,মোড অফ একশনঃকৃমিনাশক,সেমিসিন্থেটিক এন্টিবায়োটিক।

২।গ্রুপ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক।

৩। পি এইচ,লিপো ও হাইড্রো ফিলিক অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক এর প্রকার ভেদ।

৪।জেনারেশন অফ এন্টিবায়োটিক।

৫।ব্যাক্টেরিওস্ট্যাটিক এবং ব্যাক্টেরিওসাইডাল এন্টিবায়োটিক।

৬।এন্টাগনিজম অফ এন্টিবায়োটিস।

৭।এন্টিবায়োটিক এর জেনেরিক নাম এবং বডিওয়েট অনুযায়ী ডোজ।

৮।এন্টিবায়োটিকের ডোজ হিসেব করার সিস্টেম।

৯।যে এন্টিবায়োটিকের সাথে প্রবায়োটিক দেয়া যায় এবং যে এন্টিবায়োটিক দিলে প্রবায়োটিকের কার্যকারিতা কমে যায়

১০।মুরগির ক্ষেত্রে এন্টিবায়োটিকের প্রত্যাহারকাল( ডিম ও মাংস)

১১।কোন এন্টিবায়োটিকের হাফ লাইফ কত,এর গুরুত্ব কি।

১২।এন্টিবায়োটিক কিভাবে সিলেক্ট করবো।

১৩।এন্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্ট কিভাবে হয়।

১৪।কোন এন্টিবায়োটিক কোন সিস্টেমে এবং কোন আর্গানিজমের বিরুদ্ধে কাজ করে।

১৫।এন্টিবায়োটিক কম্বাইন্ড করার নিয়ম।

৬।মেডিসিনস

১।পোল্ট্রির পুস্টি উপাদান.(শর্করা,আনিষ,চর্বি,এমাইনো এসিড,মিনারেলস)

২।পোল্ট্রির খনিজ পদার্থ(মিনারেলস)

৩।মোরগ মুরগির প্রয়োজনীয় ভিটামিন সমূহ(চর্বিতে দ্রবণীয় ভিটামিন)

৪।পোল্ট্রিতে পানিতে দ্রবণীয় ভিটামিনস পাঠ-১.

৫।পানিতে দ্রবণীয় ভিটামিনস পাঠ-২

৬।পোল্ট্রির হারবাল প্রোডাক্টস,এটিবায়োটিক মুক্ত মুরগি পালনে গুরুত্বপূর্ণ

৭।এসিডিফায়ার  নিয়ে বিস্তারিত

৮।প্রবায়োটিক নিয়ে বিস্তারিত

৯।মোড অফ একশন:এনজাইম,এসিডিফায়ার,প্রবায়োটিক,এন্টিমাইকোটক্সিন,কিডনিটনিক,রেস্পিরেটরি,স্টিমোলেন্ট,জীবানোনাশক ।

১০, বিভিন্ন কোম্পানীর এন্টিমাইকোপ্লাজমাল প্রোডাক্টস,ফ্লোরফেনিকল ও পিফ্লক্সাসিলিন এবং লিংকোমাইসিন।

১১।বিভিন্ন কোম্পানীর এমোক্সিসিলিন,কলিস্টিন,সেফালেক্সিন

১২।কোম্পানীর ডক্সিসাইক্লিন,অক্সিটেট্রাসাইক্লিন ক্লোরটেট্রাসাইক্লিন ও নিওমাইসিন।

১৩।বিভিন্ন কোম্পানীর ফ্লোমিকুইন,সিপ্রোফ্লক্সাসিলিন,নরফ্লক্সাসিলিন,এনরোফ্লক্সাসিলিন ও লিভোফ্লক্সাসিলিন।

৪।বিভিন্ন কোম্পানীর ইমোনোস্টিমোলেটর,কিডনিটনিক,লিভারটনিক

১৫।বিভিন্ন কোম্পানীর টক্সিন বাইন্ডার,কৃমিনাশক,প্রবায়োটিক,এন্টিডায়রিয়াল,উকুন নাশক

১৬।বিভিন্ন কোম্পানীর ভিটামিন-মিনারেলস,এমাইনো এসিড,প্রোটিন,ক্লোলিন ক্লোরাইড ও স্যালাইন

৭।বিভিন্ন কোম্পানীর কফ নিসারক,এঞ্জাইম,পি এইচ,এন্টিভাইরাল,মাছিনাশক,প্যারাসিটামল,এমোনিয়ানাশক,ইঞ্জেকশন

১৮।বিভিন্ন কোম্পানীর পানি জীবানূমুক্তকারক ও জীবানূনাশক

১৯।বিভিন্ন কোম্পানীর এন্টিকক্সিডিয়াল,টিকার মিক্সার

২০।বিভিন্ন কোম্পানীর সালফার ড্রাগ,এজিথ্রোমাইসিন ও এন্টিগাউট প্রোডাক্টস।

নোটঃ

যারা নিতে আগ্রহী তারা নিচের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।

বিকাশ /নগদঃ০১৭১৭৩০০৭০৬

রকেটঃ ০১৭১৭৩০০৭০৬৯

ডাচ বাংলা ব্যাংকঃ১২৭১০১২৫৭৫২৮

টাকা পাঠিয়ে ঠিকানা দিকে সুন্দরবন কুরিয়ারে পাঠানো হবে।

আমার ফেসবুক আই ডি দিয়ে ও যোগাযোগ করতে পারেন।

Please follow and like us:

About admin

Check Also

বইঃসহজ ও আধুনিক পোল্ট্রি ব্যবস্থাপনা এবং পোল্ট্রি শিল্প(লেয়ার,ব্রয়লার ওসোনালী)।বইটি কেমন জানতে ভিজিট করুন

আমরা এই ব্লগে পোল্ট্রির উপর শত শত আর্টিকেল পড়েছি,সেই গুলোকে সহজ করে সাজিয়ে বই বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!