Breaking News

একটা ব্লাক বেংগল ছাগলের খাদ্য খরচ ০৬-০৭ টাকায় কিভাবে রাখা সম্ভব ?

একটা ব্লাক বেংগল ছাগলের খাদ্য খরচ ০৬-০৭ টাকায় কিভাবে রাখা সম্ভব ?
সেই প্রেক্ষিতেই এই পোস্ট।

দানাদার খাবারঃ-
স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী একটা প্রাপ্ত বয়স্ক ব্লাক বেংগল ছাগলকে প্রতিদিন ১৬০গ্রাম দানাদার খাবার দিতে হয়। ছাগলের জন্য ১৪-১৬% প্রোটিন সমৃদ্ধ প্রতিকেজি দানাদার খাবার বানাতে আমার খরচ হয় ২৫টাকা।
তাহলে দানাদার খাবার বাবদ গড়ে প্রতিদিন খরচ হয়-০৪টাকা।

ঘাস-পাতাঃ-
নিজে চাষবাস করে ঘাস-পাতা, সাইলেজ এবং হে উৎপাদন করলে প্রতিদিন একটা ব্লাক বেংগল ছাগলের জন্য দৈনিক ১.৫টাকার বেশী খরচ হবেনা।

ঔষধ খরচঃ-
ব্লাক বেংগল ছাগল আমাদের দেশের আবহাওয়ায় খুবই উপযোগী হওয়ায় অসুখ বিশুখ হয়না বললেই চলে। আমার অভিজ্ঞতায় দেখেছি- ছাগলকে দানাদার খাবারটা একটু খেয়াল করে বুঝে শুনে রুটিন মত দিলে পেটের সমস্যা হয়না। এছাড়া ঠান্ডা কাঁশিতে প্রাকৃতিক ভেষজ ব্যবহারে ভালো ফল পাওয়া যায়। তারপরও প্রতিদিন ঔষধ বাবদ গড়ে-১০পয়সা ধরা যাক।

শ্রমিক খরচঃ-
একটা ব্লাক বেংগল ছাগলের পেছনে দৈনিক সর্বোচ্চ ০৩টাকা শ্রমিক খরচ ধরা যেতে পারে।

হিডেন কস্টঃ-
স্থায়ী মুলধনের অবচয়, বিবিধ খরচ বা আকস্মিক যেকোন কারনে খরচ বেড়ে যেতে পারে সেজন্য প্রতিটি ছাগলের জন্য দৈনিক ২০পয়সা হিডেন কস্ট ধরা হলো।

তাহলে দৈনিক একটা প্রাপ্ত বয়স্ক ব্লাক বেংগল ছাগলের পেছনে খরচ হয়-
দানাদার বাবদ-০৪টাকা
ঘাস-পাতা-১.৫টাকা
ঔষধ-১০পয়সা
শ্রমিক-০৩টাকা
হিডেন কস্ট-২০পয়সা
মোট খরচ=৮.৮০টাকা।

নির্ঘন্টঃ-
Ø বছরের কোন কোন সময় দানাদার খাবার বানাতে আমার প্রতিকেজি ২৫টাকারও কম পরে। তবে ২৫টাকার বেশী কখনো পরেনি।
Ø ছাগলের গর্ভকালীন সময়ের ২য় এবং ৩য় মাস দানাদার না দিলেও চলে। কাজেই গড় খরচ আরো কমে যাবে।
Ø চাড়ন ভূমিতে চড়াতে পারলে কিংবা অন্তত পক্ষে বছরের কয়েক মাসও যদি চড়ানো যায় তাহলে গড় খরচ আরো কমে যাবে।
Ø ভালোমানের হে এবং সাইলেজ খাওয়াতে পারলে দানাদার কমিয়ে দেওয়া যায়, এর ফলেও গড় খরচ কমবে।
Ø ভলিউম যত বাড়বে অর্থাৎ ছাগলের সংখ্যা যত বাড়বে গড় খরচ ততই কমবে।
Ø সর্বোপরি অনুকূল পরিবেশ এবং ব্যবস্থাপনা জ্ঞান ভালো থাকলে খরচ আরো কমানো সম্ভব।

পুনশ্চঃ-
ছাগলের দানাদার খাবার বলতেই যারা বিভিন্ন রকমের ভূষি বুঝেন, যারা চিলে কোঠায় ছাগল পালেন এবং সর্বোপরি যারা তর্ক করতে চান তাদের সাথে আমার দেওয়া হিসাব মিলবেনা।  আর যারা প্রকৃতপক্ষে জ্ঞান পিপাসু, ব্যবস্থাপনা বুঝেন, বানিজ্যিকতা বুঝেন এবং বিজ্ঞানমনা তাদের জন্য এই লেখা।

পরিশেষেঃ-
ব্যবসায়ে লাভ দুই ভাবেই করা যায়- আয় বৃদ্ধির ব্যবস্থা করে এবং ব্যয় সংকোচন করে।

লেখকঃ শখের খামার এগ্রো প্রজেক্ট

Please follow and like us:

About admin

Check Also

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা:

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা: গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!