Breaking News
কৃমি সমাচার
কৃমি সমাচার

কৃমি সমাচার (WORMS)

কৃমি সমাচার (WORMS)

বাংলাদেশের আবহাওয়া কৃমির জন্য যথেষ্ট উপযোগী। যার জন্য গৃহপালিত পশু কমবেশি কোন না কোন কৃমি দ্বারা আক্রান্ত হয়ে থাকে।

পরজীবি/বহিঃপরজীবি এবং কৃমির ডিম দ্বারা সংক্রামিত খাদ্য খেয়ে গবাদিপশু কৃমিতে বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে।

নিয়মিত ও সঠিক পদ্ধতির মাধ্যমে বছরে কমপক্ষে তিন বার কৃমিনাশক ঔষধ প্রয়োগ করে এই কৃমিরোগ দমন করতে হয়।

সবচেয়ে ভালো হয় গরুর মল (গবর) ল্যাবঃ এ পরীক্ষা করে দেখে, কোন কৃমি দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে তা নিশ্চিত হয়ে চিকিৎসা দেয়া।

কৃমি প্রধানত তিন প্রকার। 
১) পাতাকৃমি (Flukes/Trematodes) (কলিজার পাতাকৃমি, রক্তের পাতাকৃমি, রুমেন কৃমি)।

পাতাকৃমি সাধারনত কলিজায় রক্তে ও রুমেন এ বাস করে। এ জাতীয় কৃমি দেখতে পাতার মত।

বর্ষার মধ্যভাগ ও শীতের শুরু পর্যন্ত এই কৃমি সবচেয়ে বেশি সংক্রমন করে থাকে। এই কৃমি দ্বারা সৃষ্ট রোগ সমুহ হলো
> Fasciola spp.
> Paramphistomum spp.
> Schistosoma spp.
ঔষধ- ট্রাইক্লাবেন্ডাজল গ্রুপ 900mg/50-75kg b wt or নাইট্রোক্সিনিল গ্রুপ 1.5/50 kg b wt or হেক্সাক্লোরোফেন গ্রুপ 10mg/1kg b wt. or অক্সিক্লোসানাইড গ্রুপ 10mg/1kg b wt হিসাবে পাতাকৃমির চিকিৎসায় কার্যকর।
পাতাকৃমি নিয়ে বিস্তারিত আসছে পর্ব-৫৩

২) গোলকৃমি (Round worms/Nematodes)
(কেঁচো বা বড় গোলকৃমি, পাকস্থলীর গোলকৃমি, অন্ত্রনালীর গোলকৃমি, ফুসফুসের গোলকৃমি)।

এই কৃমি পশুর ক্ষুদ্রান্তে বাস করে এবং পুষ্টিতে ৪০% ভাগ বসায় ও ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।

সকল বয়সের গরু এ কৃমি দ্বারা আক্রান্ত হয়ে থাকে। গোলকৃমি দ্বারা সৃষ্ট রোগ সমুহ হলো।
> Ascaris spp.
> Haemonchus spp.
> Ancylostomum spp.
> Bunostomum spp.
> Strongylus spp.
> Strongyloids spp.
> Dictyocaulus spp.
> Verminous spp.
> Thelazia spp.
> Stephanofilaria spp.
ঔষধ- লিভামিসল গ্রুপ 600mg/50-75kg b wt. or টেট্রামিসোল গ্রুপ 1 tab/100-150 kg b wt. or আইভারমেকটিন গ্রুপ 1cc/50kg b wt. হিসাবে গোলকৃমির চিকিৎসায় কার্যকর।
গোলকৃমি নিয়ে বিস্তারিত আসছে পর্ব-৫৪

৩) ফিতাকৃমি (Tape worms/Cestodes)
এই কৃমি গবাদিপশুর অন্ত্রে বাস করে এবং বাছুর গরুকে বেশি আক্রমন করে।

দেখতে ফিতার মত হলেও আক্রান্ত গরুর মলের সঙ্গে সাদা ভাতের মত কৃমির খন্ডিত অংশ বের হতে দেখা যায়।

সাধারনত কুকুর এই কৃমি ছরিয়ে থাকে। ফিতাকৃমি দ্বারা সৃষ্ট রোগ সমুহ হলো।
> Moniezia spp.
> Taenia spp.
> Tape worms spp.
ঔষধ- অ্যালবেন্ডাজল গ্রুপ 15mg/1kg b wt or ফেনবেনডাজল 5mg/1kg b wt & পাইপারজিন গ্রুপ 10mg/kg b wt হিসাবে ফিতাকৃমির চিকিৎসায় কার্যকর।

নিয়মাবলী
> গরু কৃমিতে আক্রান্ত না থাকলেও নিশ্চিন্তে নিয়মিত কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ানো যাবে। এতে কোন ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই।
> ভাল ফলাফল পাওয়ার জন্য গরুকে সকালে খালি পেটে কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়াতে হবে।
> দানাদার খাবারের পানির সাথে কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ালে কোন কাজ করবে না।
> ট্যাবলেট গুড়া করে চিটাগুড় বা কলার পাতার সাথে মুড়িয়ে খালি পেটে খাওয়াতে হবে।
> কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ানোর পর কমপক্ষে ১ ঘন্টা কোন ধরনের খাবার দেয়া যাবে না।
> কৃমিনাশক ঔষধ নির্দিষ্ট মাত্রার চেয়ে বেশি পরিমান খাওয়ালেও কোন ক্ষতি হবে না।
> মাত্রার চেয়ে কম খাওয়ালে কৃমিতো মরবেই না বরং আরও সক্রিয় হবে।
> গাভীর বাচ্চা দেয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে কোন প্রকার কৃমিনাশক ব্যবহার করা যাবে না।
> প্রজনন করানোর ৪৫ দিনের মধ্যেও কৃমিনাশক ব্যবহার উচিত নয়। তবে তীব্র রোগের ক্ষেতে প্রজনন করানোর ৩০ দিন পর কৃমিনাশক ব্যবহার করা যায়।
> অত্যন্ত গরম আবহাওয়ায় কৃমিনাশক খাওয়ানো যাবে না। যদি খাওয়াতেই হয় তাহলে খাওয়ানোর পর গরুকে ১০/১৫ মিনিটের মত সময় ধরে গোসল করাতে হবে ও ফ্যানের নিচে রাখতে হবে।
> ৮ মাসের উপড় গর্ভবতী গাভীকে কৃমিনাশক খাওয়ানো উচিত নয় তবে তীব্র রোগের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে।
> নিয়মিত ৩-৪ মাস পর পর সকল গরুকে কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়াতে হবে।
> অসুস্থ সময়ে গরুকে কৃমিনাশক প্রয়োগ করা যাবে না।
> সদ্য ভুমিষ্ঠ গরুর বাচ্চাকে জন্মের ৫/৭ দিনের মধ্যে পাইপারজিন গ্রুপের কৃমিনাশক পাউডার খাওয়াতে হবে এবং ৬ মাস বয়স পর্যন্ত প্রতি মাসে ১টি করে এ্যালবেন্ডাজল গ্রুপের ট্যাবলেট খাওয়াতে হবে।

প্রতিবার কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ানোর পর অবশ্যই মাত্রানুযায়ী লিভার টনিক খাওয়াতে হবে।

কৃমিনাশক ঔষধ প্রয়োগের পরে অরুচি হলে রুচিবর্ধক ঔষধ খাওয়ালে দ্রুত রুচি ফিরে আসবে এবং দুর্বলতা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ভিটামিন মিনারেল জাতীয় ঔষধ ব্যবহার করা যেতে পারে।

Information by Dr. Monojit kumar (DVM) & Dr. Jalal Uddin (DVM)
(Rasel

Please follow and like us:

About admin

Check Also

বাছুরের ডায়রিয়ার কারণ

Couses of diarrhea in neonatal rumenants 🔷Bacterial: 🔸Escherichia coli 🔸Salmonella spp. 🔸Campylobacter fecalis 🔸Campylobacter coli …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!