সরিষার শুকনা পাতা ও কান্ড
সরিষার শুকনা পাতা ও কান্ড

সরিষার বীজ আহোরণের পর  পরিত্যাক্ত শুকনো সরিষার গাছের পাতা ও কান্ড হতে পারে গবাদিপশুর খাদ্য!!!

সরিষার বীজ আহোরণের পর  পরিত্যাক্ত শুকনো সরিষার গাছের পাতা ও কান্ড হতে পারে একটি উৎকৃষ্ট গবাদিপশুর খাদ্য!!!

আমাদের দেশে সরিষা গাছ থেকে বীজ বা সরিষা দানা আহোরণের পর সেগুলি সাধারণত জ্বালানী হিসাবেই ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এই ফেলনা জিনিষটিই যে একটা ভালো মানের গরুর খাদ্য হতে পারে সেই সম্বন্ধে অনেকেরই ধারণা নাই।

এটা আমিষ বা প্রোটিনের ভালো একটা উৎস গবাদিপশুর জন্য। সরিষা গাছের পাতা ও কান্ড ভালো করে শুঁকিয়ে গুড়া করে ১০০ কেজি দানাদার গোখাদ্যে অনায়াসে ১৬ থেকে ১৮ কেজি মেশাতে পারেন।

এতে গোখাদ্যে আমিষের চাহিদা অনেকটাই পূরণ হবে! কারণ এতে কমপক্ষে ১২%-১৬% প্রোটিন বা আমিষ আছে এবং এর টোটাল ডাইজেস্টেবল নিউট্রিয়েন্টস ভ্যালু হলো ৫৫%-৬০%।

উপরের উলেখিত হারে যদি এটা গো-খাদ্যে মেশানো হয় তাহলে ব্লোটিং, ফিড ইন্টেইক ডিপ্রেশন, টক্সিকেশন বা বিষাক্ততা কোনটিই ঘটবে না।

তবে ষাড়ের জন্য এটা বেশী উপযুক্ত যে গুলিকে মাংসের জন্য পালন করা হয়ে থাকে। কাঁচা সরিষা গাছ কিন্তু বিভিন্ন ধরনের ঘাসের সাথে মিশিয়ে সাইলেজ তৈরীতেও ব্যবহার করা যায়! এতে সাইলেজে প্রোটিনের পরিমাণ বেড়ে যায় অনেক!!!

Please follow and like us:

About admin

Check Also

সহজভাবে গরুর খাবার উৎপাদন /ব্যবস্থা করার সিস্টেম

লিখেছেন মিজানোর রহমান (পিডিএফ গ্রুপ) কিছু কদু গাছ লাগাইছি, বুড়ো পাতা গরুরে খাওয়াব… কিছু কলাগাছ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »