Breaking News

গাভীর ওলান ফুলা বা ম্যাস্টাটিস থেকে কিভাবে মুক্ত রাখা যায়।

ওলান ফুলা বা ম্যাস্টাটিস
==================================
এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার সহজ কিছু পন্থা আমার অভিক্ততার বাস্তব আলোকে লিখলাম।

শুধু ডেইরী শিল্পে নয় যেকোন শিল্পে অবহেলা করলে কাঙ্গিত ফলাফল আশানুরূপ হয় না।

সময়ের কাজ সময় কে গুরুত্ব দিয়ে ধৈয’ সহকারে পরিশ্রম করতে হবে আর অবহেলা নামক রাস্তা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

ম্যাস্টাটিস হলে শুধু গরুকে ভোগান্তে রাখে না খামারীকে ও চিন্তিত করে রাখে এমন কি সারাজীবনের জন্য গাভীর বাট ও নষ্ট করে ফেলে।

ম্যাস্টাটিস থেকে মুক্তি পাওয়ার সহজ উপায়গুলো হলোঃ
==================================

১।গরুকে পরিষ্কার পরিচ্ছন রাখুন সবসময়ই।

২।ওলানে কোন অবস্থাতেই যেনো গোবর বা ময়লা না থাকে সে দিকে নজর রাখতে হবে।।

৩।জীবাণু নাশক দিয়ে   প্রতিদিনই  খামারে স্প্রে করতে হবে।

৪।গরু যে মেট এর উপর শুয়ে থাকে সপ্তাহে কমপক্ষে ২ বার মেট গুলোকে জীবানু নাশক দিয়ে জীবানু মুক্ত করবেন।

৫। গাভী বাচ্চার দেওয়ার ১০/১৫ মিনিটের ভিতরে শাল দুধ বাচ্চাকে খাওয়ান ও ওলানের সমস্ত দুধ দোহন করুন।

৬। ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা পর পর দুধ দহন করবেন এবং ওলানে ঠান্ডা পানি ও বরফ দিয়ে চেক দিবেন।

৭।গাভীকে যে খাবার দিলে দুধ আসে সেই সকল দুধালো খাবার মিনিমাম ৩/৫ দিন দিবেন না।
খড় এবং ভুষি ও পানি অল্প করে খাওয়াবেন।

৮।দিনে বাচ্চা দিলে রাতে অব্যশই সজাগ থেকে দুধ দহন করতে হবে আর মিনিমাম ২/৩ রাত সজাগ থাকতে হবে, আর রাতে বাচ্চা দিলে ঘুমালেন দুধ দহন না করা মানে ম্যাস্টাটিস কে সজাগ করে দিলেন।
সুতরাং অবহেলা কে “না” বলতে হবে।

৯।বাচ্চা দেওয়ার ১ ঘন্টা পর udder check পাউটার ৬০ গ্রাম করে দিন ১ বার অথবা Masticare plus পাউটার ৫ চামচ করে দিন ২ বার খাওয়াবেন একটানা ৫/৭ দিন।

১০।যিনি দুধ দহন করবেন হাতের নখ ছোট ও পরিস্কার রাখতে হবে এমন কি ওলান ও জীবাণু মুক্ত রাখার চেষ্টা করবেন প্রতিদিন।

মোঃ জুলমত আলী

Please follow and like us:

About admin

Check Also

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা:

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা: গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!