Breaking News
খাবারের হিসেব
খাবারের হিসেব

গরুর খাবারের সহজ সরল হিসাব

গরুর খাবারের সহজ সরল হিসাব (এডিটেড রিপোস্ট) :

দানাদার খাবার : গরুর সহায়ক খাবার হিসাবে আন্তর্জাতিক মানদন্ডে গরুর বডি ওয়েটের ২% দানাদার খাবার স্টান্ডার্ড ধরা হয়। দুধের গরুকে প্রথম ৩ কেজি দুধের জন্য ৩ কেজি দানাদার খাবার, পরের প্রতি ৩ কেজি দুধের জন্য ১ কেজি দানাদার খাবার। দানাদারের মধ্যে ৫৫-৬০% শর্করা (চালের কুড়া, ভুট্টা, গমের ভুষি), ২৫-৩০% প্রোটিন ( ডালবীজ যেমন : এংকর, মশুরী, মুগ, খেসারী, মাষকলাই বা ডালবীজের খোসা), ১০-১২% ফ্যাট ( তেলজাতীয় বীজের খৈল, যেমন: সরিষা, তিল, নারিকেল, সয়াবিন, কালোজিরার খৈল), ভিটামিন ও মিনারেল ২-৩% (যেমন : লবন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন, জিংক, বিট লবন, লালী)। তবে প্রোটিন জাতীয় খাবার বেশী দিলে অন্য খাবার কমিয়ে দেয়া যায় এবং দানাদার খাবারের পরিমান পুস্টিমানের উপরেও নির্ভর করে। প্রতি কেজি মধ্যম মানের কার্বোহাইড্রেট জাতীয় দানাদার খাবার থেকে গড়ে ১০-১২ মেগাজুল, প্রোটিন জাতীয় খাবার থেকে গড়ে ১২-১৪ মেগাজুল এবং ফ্যাট জাতীয় খাবার থেকে ২৫-৪০ মেগাজুল শক্তি গরু পেয়ে থাকে।

ঘাস/খড়/হে/সাইলেজ : ঘাস খড় গরুর প্রধান খাবার এবং গরুকে সুস্থ্য রাখতে সাহায্য করে। কমপক্ষে বডি ওয়েটের ৫% ঘাস দিতে হবে। মধ্যম পুস্টি মানের যেকোন ১ কেজি ঘাস থেকে গড়ে ২ মেগাজুল শক্তি পাওয়া যায়। খড়ে পুস্টি কম থাকলেও রুমেনের স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য খড় সবচে গুরুত্বপূর্ন গোখাদ্য। প্রতি কেজি খড় থেকে গড়ে ৫-৬ মেগাজুল শক্তি পাওয়া যায়। সাইলেজ ঘাসের বিকল্প খাবার এবং পুস্টিগুন প্রায় ঘাসের সমান বা সামান্য বেশী। প্রতি কেজি মধ্যম মানের সাইলেজ থেকে গড়ে ৩ মেগাজুল শক্তি পাওয়া যায়।ঘাস, খড় ও সাইলেজ মিলে বডি ওয়েটের কমপক্ষে ১০% রাফেজ জাতীয় খাবার দিতে হবে।

ষাড়ের জন্য ইউ এম এস : লাইভ ওয়েটের
সর্বোচ্চ ০.১% দেয়া যেতে পারে।.০.০৫% থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে বাড়াতে হবে এবং ইউ এম এস দিলে অন্য খাবার কমিয়ে দিতে হবে। অসুস্থ্য গরুকে খাওয়ানো যাবেনা এবং কোন কারনে খাওয়ানো বন্ধ করে পূনরায় অল্প অল্প করে শুরু করে বাড়াতে হবে। অতিরিক্ত ইউ এম এস গরুতে এবং গোস্তে বিষক্রিয়া সৃষ্টি করে।

বাছুরের জন্য দুধ : পর্যাপ্ত দুধ বাছুরের পুস্টি এবং সঠিকভাবে বেড়ে ওঠার জন্য সবচে জরুরী। কমপক্ষে বাছুরের ওজনের ১০% দুধ দিতে হবে।

দ্রস্টব্য : গরুকে ৮ কেজির বেশী দানাদার দেয়া ঠিক নয়। কারন দানাদার খাবার গরুর হজম প্রক্রিয়ায় ব্যাঘাত ঘটায়, এসিডিটি সৃস্টি করে এবং প্রজনন ক্ষমতা নস্ট করে। গরুর জাত ভেদে এবং দুধের পরিমান ভেদে দানাদার খাবারের শতকরা হিসাবে সামান্য হেরফের হতে পারে।

jahidul islam(PDF)

Please follow and like us:

About admin

Check Also

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা:

গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা: গবাদিপশুর খামারের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যের তালিকা সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!