Breaking News
ক্রপ
ক্রপ

মুরগির ক্রপ_টেস্ট ও পায়ের পাতা টেস্ট এল, কেন করা হয়।বাচ্চার রেসপনসিভ টেস্ট

 

 

 

 

মুরগির ক্রপ_টেস্ট ও পায়ের পাতা টেস্ট কি কেন করা হয়

#ক্রপ_টেস্ট_কি ?

এটি একটি পরীক্ষা যার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার বাচ্চা খাদ্য,পানি খাচ্ছে কি না বা অসুস্থ কিনা

#কিভাবে_করবেন?
বাচ্চার খাদ্যথলি (ক্রপ) কে অঙ্গুল দিয়ে আলতো ভাবে চাপ দিয়ে এই পরীক্ষাটি করা হয়।

#কখন_করবো
ব্রডিং এ যে কয়দিন রাখবেন সে কয়দিন করতে পারেন। তবে বাচ্চা ব্রুডারে ছাড়ার দিন অর্থাৎ প্রথম ২৪ ঘন্টা ক্রপ টেস্ট করার উপযুক্ত সময়।

#কেন_করবো
বাচ্চা ব্রুডারে স্বস্তিবোধ করছে কি না অর্থাৎ ব্রুডারের তাপমাত্রা, আদ্রর্তা, বায়ুপ্রবাহ ঠিক আছে কিনা সর্বোপরি বাচ্চা শারিরিকভাবে সুস্থ্য আছে কিনা, ক্রপ টেস্টের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন।

#কয়বার_করতে হবে
বাচ্চা ছাড়ার প্রথম দিন ২৪ ঘন্টার মাঝে ৪ বার ক্রপ টেস্ট করতে হবে ,৪টা জায়গা থেকে ১০টি করে                                                           বাচ্চা নিতে হবে।

১ম দিন

বাচ্চা ছাড়ার ৩ ঘন্টা পর- ১ম বার
বাচ্চা ছাড়ার ৬ ঘন্টা পর- ২য় বার
বাচ্চা ছাড়ার ১২ ঘন্টা পর- ৩য় বার
বাচ্চা ছাড়ার ২৪ ঘন্টা পর- ৪র্থ বার
২৪ ঘন্টা পর  ক্রপ টেস্ট করলে যদি এতে ১০০% বাচ্চার ক্রপ  (সেমি-সলিড) থাকে তাহলে বুঝতে হবে  সব ঠিক আছে

এরপর ব্রুডিং এর প্রতিদিন ২ বার করে ক্রপ টেস্ট করলে ভাল

#ক্রপ_টেস্ট_করে_কি_দেখবেন?
ক্রপের ৪ টি অবস্থা থাকতে পারে।

১. এম্পটি ক্রপঃ
ক্রপ টেস্ট করে যদি দেখেন ক্রপ ফাঁকা, এর মানে বাচ্চা খাদ্য পানি কিছুই খায় নি।

#কারনঃ
কম তাপমাত্রা।
আলোক স্বল্পতা।
খাদ্য ও পানির পাত্রের স্বল্পতা।
অধিক ঘনত্ব।
ভেজা লিটার।

#প্রতিকারঃ
তাপমাত্রা বৃদ্ধি করতে হবে।
যথেষ্ঠ আলোর ব্যবস্থা (গ্যাস ও কোল ব্রুডিং এর ক্ষেত্রে) করতে হবে।
পরিমানমত খাদ্য ও পানির পাত্র দিতে হবে।
ব্রুডারে সঠিক পরিমানে বাচ্চা দিতে হবে।
শুকনো ও পুরু করে লিটার দিতে হবে।

২. হার্ড ক্রপঃ
ক্রপ যদি শক্ত থাকে অর্থাৎ খাদ্যে পূর্ন থাকে তবে এর মানে বাচ্চা শুধু খাদ্য খেয়েছে, পানি খায়নি।

#কারনঃ
ঠান্ডা পানি।
কম তাপমাত্রা।
পানির পাত্রের স্বল্পতা।

#প্রতিকারঃ
কুসুম গরম পানি সরাবরাহ করতে হবে।
তাপমাত্রা বৃদ্ধি করতে হবে।
পানির পাত্র পরিমানমত দিতে হবে।

৩. সপ্ট ক্রপঃ
ক্রপ যদি নরম থাকে তার মানে বাচ্চা খাদ্য খায় নি। শুধু পানি খেয়েছে।

#কারনঃ
অত্যাধিক তাপমাত্রা।
বাচ্চার ডিহাইড্রেশন বা পানিশূণ্যতা থাকলে।
কম খাদ্য পাত্র।
অধিক ঘনত্ব।

#প্রতিকারঃ
তাপমাত্রা কমাতে হবে।
গ্লুকোজ পানি সরাবরাহ করতে হবে।
খাবার পাত্র বৃদ্ধি করতে হবে।
ব্রুডারে সঠিক পরিমানে বাচ্চা দিতে হবে।

৪. সেমি-সলিড ক্রপঃ
সেমি সলিড ক্রপ মানে বাচ্চা খাদ্য ও পানি দুটোই খেয়েছে। এ অবস্থায় ক্রপটি কিছুটা শক্ত ও নরমের মাঝামাঝি থাকবে। এটি ভাল অবস্থা। এবং আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে আপনার বাচ্চাগুলোর ক্রপ যেন এই অবস্থায় থাকে। ১০০% বাচ্চার সেমি-সলিড ক্রপ সুস্থ বাচ্চা ও আদর্শ ব্রুডিং ব্যবস্থাপনা নির্দেশ করে।

খাবার ও পানি দ্বারা ২৫%,৫০%,৭৫%,১০০% পূর্ন,এভাবে ভাগ করেও বের করতে পারি মুরগির কি অবস্থা ।

পায়ে পাতার টেস্টঃ

বাচ্চার পায়ের পাতা যদি ঠান্ডা থাকে তাহলে বুঝতে হবে লিটার ভিজা বা ঠান্ডা বা পাতলা হয়েছে বা কোন কোণ সমস্যা আছে।

সুস্থ বাচ্চার রেসপনসিভ টেস্ট

বাচ্চার পা ধরে উল্টিয়ে দিলে যদি ১০ সেকেন্ডের মধ্যে উঠে দাঁড়ায় তাহলে বুঝা যায় বাচ্চা সুস্থ আছে।

পায়খানা টেস্টঃ

সেডে ঢুকার পর যদি গন্ধ পাওয়া যায় তাহলে বুঝতে হবে আমাশয় আছে।বা লিটার বাহিরে মুরগি রেখে দিলে যদি ১০ % বা বেশি পায়খানা গুড়ের মত  বা পাতলা হয় তাহলে আমাশয়ের সন্ধেহ করা যায়।নরমালি ১০% এর কম গুড়ের মত পায়খানা হলে নরমাল ধরা হয়।

Please follow and like us:

About admin

Check Also

খামারীর কৃপণতা এবং অপচয় যা ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়ায়।

খামারীর কৃপণতা যা তাকে লসে ফেলে দেয়,খামারীর অপচয় যা লসে ফেলে দেয় বা ক্ষতির কারণ …

Translate »
error: Content is protected !!