Breaking News

গাভীর ফিড ফরমুলেশনের খুঁটিনাটি

০২১ঃ ডেইরী গাভীর দানাখাদ্য ও রাফেজ (ঘাস/সাইলেজ) কাহিনীঃ

আজকে আমরা ৩০০ কেজি ওজনের ১০ লিটার দুধ দেয়া গাভীর খাদ্যের হিসাব করব। প্রাথমিক চিকিৎসা জানা যেমন জরুরি তেমনি খাদ্যের রেশন নির্ধারন করতে জানাটাও ডেইরী খামারির জন্য জরুরি একটি দক্ষতা – কারন পুস্টিবিদের সংখ্যা কম- আবার আপনি নিজে যদি না বোঝেন তবে পুষ্টিবিদের পরামর্শ গ্রহণ করবেন কিভাবে? অন্ধের হাতি দর্শনে সঠিক সিদ্ধান্তে আসা যায় না। একটা প্রবাদ আছে-

“Eyes can not see what mind doesn’t know.”

 

★ দুধ দেয়া গাভীর খাদ্য নির্ধারনে জানতে হবেঃ-

৪. দৈনিক ড্রাই ম্যাটারের চাহিদা ( যা মোট ওজনের সর্বোচ্চ ৪%. অর্থাৎ ৩০০ কেজি ওজনের জন্য ১২ কেজি)

★ মূল হিসাবঃ (৩০০ কেজি, ১০ লিটার দুধ, ল্যাক্টেশনের ১ম ভাগ)

১. শক্তির হিসাবঃ (
৩০০ কেজি ওজনের জন্য দরকার= ৩৬ মেগাজুল
১০ কেজি দুধের জন্য (১০x৫.৪) = ৫৪ মেগাজুল
মোট শক্তি দরকার = ৯০ মেগাজুল

২. ক্রুড প্রোটিনের হিসাবঃ ( চিত্র নং- ২ হতে)
৩০০ কেজি ওজনের জন্য দরকার = ২৮৮ গ্রাম
১০ কেজি দুধের জন্য (১০x৮৫) = ৮৫০ গ্রাম
লাইভ ওয়েট ম্যানেজমেন্ট এর জন্য= ২৪০ গ্রাম
মোট ক্রুড প্রোটিন দরকার = ১৩৭৮ গ্রাম

৩. ফাইবারের হিসাবঃ
ক্রুড ফাইবার (CF)= কমপক্ষে ১৭%
নিউট্রাল ডিটারজেন্ট ফাইবার (NDF)= কমপক্ষে ৩০%
অ্যাসিড ডিটারজেন্ট ফাইবার (ADF) = কমপক্ষে ১৯%

৪. ড্রাই ম্যাটারের হিসাবঃ (সর্বোচ্চ ৪%)
৩০০ কেজির ৪% =১২ কেজি

★ উপরের হিসাব থেকে আমরা বুঝলাম- ৩০০ কেজি ওজনের ১০ লিটার দুধ দেয়া গাভীর দৈনিক ৯০ মেগাজুল শক্তি ও ১৩৭৮ গ্রাম ক্রুড প্রোটিন দরকার যা সর্বোচ্চ ১২ কেজি ড্রাই ম্যাটার ও কমপক্ষে ১৭% ক্রুড ফাইবার (বা ৩০% NDF ও ১৯% ADF) এর ভেতর সরবরাহ করতে হবে।

এবার রেশন ঠিক করার আগে কোন খাবারে কতটুকু শক্তি, ক্রুড প্রোটিন, ফাইবার, ড্রাই ম্যাটার আছে তা চিত্র নং-৪ হতে দেখে নিই।

★ রাফেজ ও দানাদার কোনটি কতটুকু খাওয়াবেন তা নির্ধারণের আগে খামারী ও বিশেষজ্ঞদের ২টি চরমপন্থী দলের সাথে পরিচিত হওয়া দরকারঃ-

১. প্রথম দল- সাইলেজ বিপ্লবীঃ

কেউ কেউ সাইলেজকে এতটাই ভালবেসে ফেলেছেন যে- একদিন শুধু সাইলেজ দিয়েই এদেশে গাভী পালা হবে- অন্যকিছু লাগবে না- দানা খাদ্য লাগবে না- এরূপ দিবা স্বপ্ন দেখেন। এরাই সাইলেজ বিপ্লবী।

সাইলেজ অত্যন্ত ভাল জিনিস। সাইলেজ এর সংজ্ঞাই হল- এটা সংরক্ষিত ঘাস- ব্যস এততুকুই। একে গাভীর জন্য মান্না-সালওয়া মনে করে ১০ টাকা কেজিতেও কিনতে রাজি হয়ে গেলে কিন্তু বিপদ। কারণ ঘাসের কেজির দাম যা- সাইলেজের কেজির দাম তার চেয়ে খুব একটা বেশী হওয়া যৌক্তিক নয়।

শুধু সাইলেজে কেন গাভী পালা যাবে না তা ব্যাখ্যা করছি।

শুধু শক্তির হিসাব করলে সর্বোচ্চ ভাল মানের ভুট্টার মিল্কিং স্টেজের ১ কেজি সাইলেজে শক্তি আছে ৩.২৪ মেগাজুল। তাহলে ৯০ মেগাজুল শক্তি পেতে সাইলেজ লাগবে ২৮ কেজি। আর ২৮কেজি সাইলেজে ক্রুড প্রোটিন আছে (২৮x২২=) ৬১৬ গ্রাম, ড্রাই ম্যাটার আছে (২৮x৩০০গ্রাম=) ৮.৪কেজি

তাহলে সাইলেজ বিপ্লবীরা উত্তর দিনঃ-

১. ২৮কেজি সাইলেজ কি ৩০০ কেজি গাভীর পেটে আটবে??

যদি ধরে নেই আটবে, তাহলেঃ-

২. ক্রুড প্রোটিন পেল ৬১৬গ্রাম, বাকী (১৩৭৮-৬১৬) = ৭৬২ গ্রাম ক্রুড প্রোটিন কি গাভী স্বপ্নে পাবে? নাকি মুখ দিয়েই দিতে হবে??

৩. ২৮ কেজি ঠেসে খাওয়াতে পারলেও তো ড্রাই ম্যাটার ১২ কেজি হয় না। হয় মাত্র ৮.৪ কেজি।

৪. আবার যদি ক্রুড প্রোটিন দিয়ে হিসাব করি- ১৩৭৮ গ্রাম ক্রুড প্রোটিন পেতে ভূট্টা সাইলেজ লাগবে (১৩৭৮÷২২) = ৬৩ কেজি। তো ভাই, ৬৩ কেজি সাইলেজ ৩০০ কেজির গরুকে একদিনে খাওয়া চাইলে গরুর আরও ২টা পেট ভাড়া করা লাগবে।

অতএব বোঝা গেল শুধু রাফেজ দিয়ে বানিজ্যিক খামারের দুধের গাভীর পুষ্টি চাহিদা পূরণ সম্ভব নয়।

★ হ্যা গাভী পালা সম্ভব- যদি আপনার উচ্চ মানের লিগিউম জাতীয় ঘাসের ১০০ বিঘা উঁচু জমি থাকে- তবে আপনি ১০০টি গাভী ছেড়ে দিলেন- তাদের দুধের ক্যাপাসিটি হয়তো ২০লিটার- কিন্তু তারা আপনাকে ৪-৫ লিটার দিল- ২/৪ টা মরে গেল- ২/৪ টা বন্ধ্যা হয়ে গেল। কোন বাড়তি খরচ লাগলো না। দুর্ভিক্ষের সময়ও তো মানুষ-গরু বেঁচে থাকে- সবতো আর মরে যায় না। অভিযোজন ক্ষমতা বলে তো একটা ব্যাপার আছে।
ভারতবর্ষের ভাল ভাল ৮-২৭ টি জাতের সমন্বয়ে আমাদের দেশী গরু কিন্তু এই দুর্ভিক্ষ ফরমুলাতেই তৈরী হয়েছে- এ যেন বিবর্তনের উলটো পথে হাটা।

২. দ্বিতীয় দল- দানাপ্রেমীঃ

দানাপ্রেমীরা সাইলেজ বিপ্লবীদের মত এত সরব নয়। তারা ঘাস দরকার (বিচার মানি) কিন্তু কই পাবো (তালগাছ আমার) বলে দানার সাথে বড়জোর খড় আর তুলা খাওয়ান।

শুধু দানা দিলে কি দাড়াচ্ছে?

ভালমানের দানা খাদ্য পেতে হলে ৯০% ড্রাই ম্যাটারের ১৮% ক্রুড প্রোটিন হিসাবে প্রতি কেজি দানা খাদ্যে ১৬২ গ্রাম ক্রুড প্রোটিন থাকতে হবে। তাতে শক্তি পাওয়া যাবে কেজিতে ১০-১১ মেগাজুল।

তাতে ৯০ মেগাজুল শক্তি পেতে ৯ কেজি বা ১৩৩৮ গ্রাম প্রোটিন পেতে ৮.৫ কেজি খাদ্য লাগছে।

শক্তি ও প্রোটিনের হিসাব না হয় মিললো কিন্তু ড্রাই ম্যাটার ও ফাইবার তো একেবারেই হচ্ছে না। ১৭% ক্রুড ফাইবার (অথবা ৩০% NDF ও ১৯% ADF) না হলে গরুর পরিপাকতন্ত্র কাজ করবে না। গরুর পেট খালি থাকবে- রুমেন না ভরায় (Rumen fill effect) গরুর পেরিস্টালসিস হবে না- অ্যাসিডোসিস ডেভেলপ করবে- পেট ফুলে গরু মরবে।

অতএব শুধু দানাতেও চলবে না। আর বেশী পরিমানের দানার সাথে ফাইবার ও ড্রাই ম্যাটার যোগ করার জন্য যদি শুধু খড় ও তুলা যোগ করা হয় তবে শক্তি-ক্রুড প্রোটিন-ফাইবার-ড্রাই ম্যাটার যদিওবা মিলে ভিটামিন, মিনারেল, মাইক্রোনিউট্রিয়েন্টন্স- এসবের এতটাই ঘাটতি পড়ে যায় যে গাভীটি দ্রুতই তার প্রজনন ক্ষমতা ও আয়ু হারিয়ে ফেলে।

অতীতে শহর ও শহরতলির উচ্চমূল্যে দুধ বেচা কিছু খামারি “All in, all out” ফর্মুলাতে লাভের মুখ দেখলেও খড়ের উচ্চমূল্যের কারনে এখন তাদের এই ব্যবসাও হুমকির সম্মুখীন। দীর্ঘমেয়াদে নিজের ঘাস/সাইলেজ ছাড়া ডেইরী খামার করা তাই একেবারেই অনুচিত। খামার করে বড় হয়েছেন- শত শত গাভী পালছেন- কিন্তু ঘাস/সাইলেজ খাওয়ান না- এরকম একজনও বড় খামারী এদেশে দেখাতে পারবেন না।

★ ( “All in, all out” ফর্মুলা হল- দক্ষতার সাথে ন্যায্য মূল্যে ২০-২৫ লিটারের গরু কিনে তাকে শুধু বেশী বেশী দানা খাবার ও খড় বা তুলা খাইয়ে সবটুকু দুধ উচ্চ মূল্যে বিক্রি করা। যদি গাভীটি আল্লাহ্‌র ওয়াস্তে কনসিভ করল তবে তাকে খামারে রাখা আর কনসিভ না করলে বা কনসিভ করতে দেরী হলে ৮ মাসের মাথায় নতুন, অতি উৎসাহী ক্রেতা দেখে বেচে দেয়া। এ ধরনের খামারির নিজের ঘরের গাভী খুব একটা তৈরি হয় না- সবসময় কেনা বেচার উপর থাকেন।)

★ অতএব রাফেজ ও দানা দুটোই দরকার। এখন প্রশ্ন হল কোনটি কতটুকু দরকার? বিভিন্ন ভাবে বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে এদুটিই সর্বনিম্ন ৪০% থেকে সর্বোচ্চ ৬০% (ড্রাই ম্যাটারের) রাখলেই ফাইবার- ভিটামিন- মিনারেল- মাইক্রোনিউট্রিয়েন্টস মোটামুটি পাওয়া যায়। ভিটামিন- মিনারেল যতটুকু বাকি থাকে সেটা সাপ্লিমেন্ট দিয়ে পূরনযোগ্য। তাই ৪০-৬০% এর মধ্যে দানা ও রাফেজ কে রাখলে নতুনদের জন্য শুধু শক্তি ও ক্রুড প্রোটিন এর হিসাব করলেই চলবে।

★ চলুন তাহলে রাফেজ ও ১৮% ক্রুড প্রোটিনের দানা খাদ্য দিয়ে রেশন সাজাইঃ-
১২ কেজি ড্রাই ম্যাটারের ৪০-৬০% হল ৪.৮ – ৭.২ কেজি।

★ ধরুন, ৫ কেজি ড্রাই ম্যাটারের নেপিয়ার ঘাস খাওয়াবো। তাহলে ঘাস লাগছে (৫ কেজি ÷ ২৫০ গ্রাম) = ২০ কেজি।
শক্তি পাচ্ছি (২০x২=) ৪০ মেগাজুল।
ক্রুড প্রোটিন পাচ্ছি (২০x২৫=) ৫০০ গ্রাম।
সুতরাং শক্তি বাকি রইলো (৯০-৪০=) ৫০ মেগাজুল।
ক্রুড প্রোটিন বাকি রইলো (১৩৭৮-৫০০=) ৮৭৮ গ্রাম।
তাহলে ৫.৫ কেজি দানা খাদ্য দিলে (৫.৫x১০=) ৫৫ মেগাজুল শক্তি ও (৫.৫x১৬২=) ৮৯১ গ্রাম ক্রুড প্রোটিন হচ্ছে- অর্থাৎ চাহিদা পূরণ হচ্ছে।

ঘাসের সাইলেজ দিয়ে হিসাবটিও মোটামুটি একই রকম। ঘাসে পুষ্টি কম থাকলে দানার পরিমান বাড়বে।

★ যদি ৪.৫ কেজি ড্রাই ম্যাটারের ভুট্টা সাইলেজ দিতে চাই তবে লাগবে (৪.৫কেজি ÷ ৩০০গ্রাম) = ১৫ কেজি।
কিন্তু শুধু ভুট্টা সাইলেজ খাওয়ালে ১৮% ক্রুড প্রোটিনের দানা খাদ্য দিয়ে হিসাব মেলানো যায় না। কারণঃ-
১৫ কেজিতে শক্তি (১৫x৩.২৪=) ৪৮.৬ মেগাজুল।
ক্রুড প্রোটিন (১৫x২২=) ৩৩০ গ্রাম।
সুতরাং শক্তি বাকি (৯০-৪৮.৬) = ৪১.৪ মেগাজুল।
ক্রুড প্রোটিন বাকি (১৩৭৮-৩৩০) = ১০৪৮ গ্রাম।

তাহলে, ৪ কেজি দানা খাদ্য দিলে শক্তি পূরন হয় কিন্তু ক্রুড প্রোটিন হয় (৪x১৬২=) ৬৪৮ গ্রাম অর্থাৎ ৪০০ গ্রামই বাকী থেকে যায়।

আবার ৬.৫ কেজি দিলে ক্রুড প্রোটিন (৬.৫x১৬২) = ১০৫৩ গ্রাম পূরন হয়। কিন্তু শক্তি বেড়ে যায় কমপক্ষে ২৫ মেগাজুল। যা গাভীর জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

তাই হিসাব মিলাতে হলে ৩ কেজি দানা খাদ্য দিয়ে ৩০ মেগাজুল শক্তি ও ৪৮৬ গ্রাম ক্রূড প্রোটিনের চাহিদা মিটিয়ে বাকী ১১.৪ মেগাজুল শক্তি ও ৫৬২ গ্রাম ক্রুড প্রোটিনের চাহিদা পূরনের জন্য ১৩০০ গ্রাম সয়াবিন মিল প্রোটিন সাপ্লিমেন্ট হিসেবে দেয়া আবশ্যক।

তাহলে এই ৪৩০০ গ্রাম দানা খাদ্য আর ১৮% (DM) ক্রুড প্রোটিন থাকে না- হয়ে যায় ২৭% (DM) ক্রুড প্রোটিন।

ব্যাপারটি ভেবে দেখেছেন কি? চিন্তা-ভাবনা না করে শুধু ভুট্টা সাইলেজ খাইয়ে গেলেই কি চলবে? প্রচলিত খড়- ঘাসে এই উচ্চশক্তি-নিম্ন প্রোটিন জনিত সমস্যা হয় না। ভুট্টা সাইলেজ আমাদের দেশে নতুন- এ ব্যাপারে চিন্তাভাবনাও কম হয়েছে। খাওয়াতে হবে বুঝেশুনে-অন্ধের মত নয়।

 

Please follow and like us:

About admin

Check Also

প্লাস্টিক ড্রামে কাঁচা ঘাস বা সাইলেস সংরক্ষন”

প্লাস্টিক ড্রামে কাঁচা ঘাস বা সাইলেস সংরক্ষন” বাজার থেকে রং বা ক্যেমিক্যেলের ব্যবহারিত খালি প্লাস্টিকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!