Breaking News
গবাদী প্রাণীর রোগ নির্ণয় পদ্ধতি
গবাদী প্রাণীর রোগ নির্ণয় পদ্ধতি

গবাদী প্রাণীর রোগ নির্ণয় পদ্ধতি

ডা এস কে এম ডি রবিউল আলম ফিরোজ স্যার এর অভিজ্ঞতা শেয়ারিং

রোগ নির্ণয় পদ্ধতি

একটা রোগী দেখতে গেলাম অভিযোগ সকাল থেকে কিছু খাচ্ছেনা মুখ ভার করে আছে। তাপমাত্রা ১০০-১০১ ডিগ্রি ফারেনহাইট।

মুখে লালা নেই,নাকে সর্দ্দি নেই। প্রথম সন্দেহ পেট জাম,রুমেনের গতি পরীক্ষা করলাম,আর পেট জাম হলে কার্বোহাইড্রেট ইনগোর্জমেন্ট,

অথবা ইদুর মারা ঔষধ দেয়া হয়েছিল কিনা, অথবা কেউ শত্রুতা করে বিষ দিছে কিনা?

মাঠে কোন বিষ দেয়া ফসল খেয়েছে কিনা,গলায় কিছু বেধেছে কিনা,পর পর যাচাই করবো।

 1.বদহজম।

হাটের কেনা অথবা ভাত অথবা পচা খড় খাওয়ালে , আর চাপ দিলে হাত বসে গেলে কার্বোহাইড্রেট ইনগোর্জমেন্ট বা বদহজম।

2.চোকঃ(choke)

চোক হলে পানি জাতীয় খাবার খেলে নাক মুখ দিয়ে বের হয়ে আসবে।সাদা পানি খাওয়ায়ে চোক পরীক্ষা করা যায়।

অর্গানো ফসফরাস বা অর্গানো ক্লোরিন কম্পাউন্ড পয়জনিং এ মুখে লালা থাকেনা, তবে পয়জনিং এর মাত্রা বেশী হলে কনভালশন থাকবে।

3.অর্গানো ফসফরাস,

একবার মাগুরার আমুড়িয়ায় ভি এফ এ অসীমের একটা রোগী দেখতে গেলাম প্রচন্ড কনভালশন কিন্তু তাপ উঠছেনা,তাপ উঠলে ভাবতাম Ephemeral fever.

অবশেষে ভাবলাম হয় ইউরিয়া পয়জনিং না হয় অর্গানো ফসফরাস, কোথায় খাচ্ছিল বলল ঘরে গড়ায়(খাবার দেয়ার পাত্র),ইউরিয়া দেইনি।তখন গড়ার পানি জাতীয় খাবারে নাড়া দিলাম দেখি নীল রং তলের দিকে সাথে সাথে একজন বলে উঠল ফোড়াডন।

অর্থাৎ অর্গানো ফসফরাস তখন তিন রুটে এ্যাট্রোপিন দিলাম ২০ সিসি করে,বেশী দিলে গলা শুকায়ে যায়।সাথে সাথে রিজাল্ট পেলাম, এরপর মোট থেমে থেমে ৯৯ সিসি দিলাম,গরু ভাল হয়ে গেল।

4.ইফিমেরাল ফেভার

যদি নাকে হালকা সর্দি আছে কিন্তু বেয়ে পড়ছে না।তখন আমরা ইফিমেরাল ফেভার ভাবতে পারি, তখন জিজ্ঞাসা করবো গরু গতকাল বৃষ্টিতে ভিজেছিল বা গা ধোয়ায়েছিলেন, অথবা ৭—১২ ঘন্টা পুর্ব গরু ২/১ বার কাশী দিয়ে ছিলো কিনা,না হলে গরু মাঝে মাঝে মাথা চুট ২/১ কাপায়ে উঠছে কিনা জানতে হবে।

শরীরের কোন মাংস মাঝে মাঝে কেপে উঠছে? তাহলে ইফি্মেরাল ফেভার আসতেছে।

এই রোগে এরপর হবে প্রচন্ড খিচুনি, তারপর বেশী সর্দি,তারপর ২/৩ ঘন্টার জন্য প্রচন্ড শ্বাস কষ্ট। তখন হালকা পেট ফাপা থাকবে পায়খানা হালকা আমাশয়।এরপর তীব্র জ্বর কাপুনি, হাপানি নেই। এরপর গায়ে ব্যাথা গরু নড়তে চাই না।এরপর পায়ে ব্যাথা,শিফটিং লেমনেস।

5.এ্যালকালয়েড পয়জনিং

নাকে মুখে লালা নেই, গায়ে ১০২–১০৩ তাপ।পায়খানা চাকা চাকা ভাজে ভাজে রক্ত। ইনজেকশনের স্হানে ফুলে উঠেছে, চামড়ার নীচে রক্ত জমে গেছে,গরু নড়ছেনা,খাচ্ছেনা।খোজ নেন পুুর্বে গরু কোথায় বেধেছিল, সেখানে বনতুলসী,বনমুলা,শিয়াল কাটা/শিয়াল মতি/ কুকুর শোকা,পেত্নী গাছ গুল্ম বা হার্ব জাতীয় গাছ খেয়েছে কিনা? তাহলে এ্যালকালয়েড পয়জনিং।স্পেসিফিক এন্টিডোট নেই।

একমাত্র চিকিৎসা ১। ডেক্সট্রোজ+ পানি (লিবোট-১০) –১০০০ সিসি।
২। এস আর বভি
১-৩ প্যাকেট হালকা গরম পানিতে খাওয়ান।
৩। এস আর প্রোবায়োটিক প্লাস
২০০–৩০০ গ্রাম প্রতিবারে খাওয়ান।
৪। ডেক্সট্রোজ পাউডার
২০০-৩০০ গ্রাম প্রতিবারে চলবে।

পায়খানা হয়ে গেলে গরু বেচে যাবে।

6.মুখে লালা আছে কিন্তু জ্বর নেই

হতে পারেঃ জিহব্বার তলায় রেনুলার সিস্ট, কাটা ফোটা,জিব্বাহে প্লাষ্টিকের চুড়ি জড়ানো,নেট আটকানো।বাশের কঞ্চি আটকে যাওয়া

৭।নাইট্রেট পয়জনিং 

মুখে লালা, জ্বর নেই অথবা সাথে পাতলা অথবা রক্তমিশ্রিত পায়খানা।

ইতিহাস নীচু জায়গার ঘাস খেয়েছে,তরকারীর জমির ঘাস খেয়েছে। খরার সময় ঘাসের পাতা মরে যায়,তখন নাইট্রেট শিকড়ে জমা হয়,বর্ষা হলে কচি পাতা গজায় সমস্ত নাইট্রেট পাতায় উঠে আসে ফলে ঐ ঘাস খেয়ে নাইট্রেট পয়জনিং হয়।

৮।মুখে লালা এবং  গায়ে জ্বর

.এফ এম ডি,ভেসিকুলার ষ্টোমাটাইটিস,ভেসিকুলার এক্সানথিমা,উডেন টাং হতে পারে।

#.জলাতংকে

প্রথম দিন তাপ ১০৫–১০৬, ২য় দিন ১০৪, ৩য় দিন উত্তেজনা যদি ফিউরিয়াস ফর্মে আক্রান্ত হয়,

উত্তেজন কম যদি ডাম্ব ফর্মে আক্রান্ত হয়।
মুখে লালা, মারতে যাবে, বার বার পায়খানা প্রস্রাব করবে, পেট বসে যাবে, মাঝে মাঝে ঢব ঢব করে পড়ে যাবে। মুখ চপ চপ করবে,পানি খাবেনা।

#.কিটোসিস

কিটোসিসে খাবেনা,পানি খাবে,আক্রমনাত্বক হতে পারে, মুখে লালা নেই, তাপ কমবেনা, বরং ১০৫ পর্যন্ত হবে।

জলাতংকে তাপ আস্তে আস্তে কমতে থাকবে।

নিচের অংশটুকু কালেক্টেড 

১।(ব্যাবেসিওসিস)

HB urea(হেমোগ্লোবিন ইউরিয়া)
বয়স্ক গরুতে বেশি হয়।
Brick red color urine
তাপমাত্রা অনেক বেশি থাকে
প্রধানত গরমকালে হয়।
bulging of eye balls.

২।Theleriosis(থেইলেরিওসিস)
অল্প বয়স্ক গরু হয়।
হ্যামোগ্লোবিন ইউরিয়া হয় না।
লিম্পনোড ফোলে যায়
high resp.rate at later stage.

৩।Trypnosomisais(ট্রিপানোমিয়াসিস)
ক্রনিক ফর্মে বেশি হয়
শুকিয়ে যায়।
Pin point haemorrhage in eye conjunctiva
partially anorexic
brisket anemia when anemic

.৪।Anaplasmosis(এনাপ্লাজমোসিস)
ক্রনিক হয়

তাপমাত্রা ১০৪ থাকে
brisket anemia when anemic
mostly in standing position

নিউমোনিয়া হয়

৫।Hypophosphatemia(হাইপো ফোস্ফাটেমিয়া)
খাবার স্বাভাবিক থাকে
তাপমাত্রা নরমাল
প্রসাব/ইউরিন কফি কালার.

৬।Bacillary Hburia(ব্যাসিলারী হ্যামোগ্লোবিন ইউরিয়া)
caused by Clostridia Haemolitica
তাপমাত্রা বেশি

এনোরেক্সিয়া
Blood in urine

Should be differentiated from Red Water ,PP HB urea like wise disease by typical signs of other diseases

SOP of general treatment
In infectious give Diminazie with oxytetracycline LA covers all as diminazine covers babesia and trpno while oxytetracycline have broad activity.after given one day can use buparvaquine short for theleria.
While in metabolic use phosphorus source

Note…….
This approach just based upon on clinical sign basis.but if lab aid is with us its matter of one blood smear slide all the things will be cleared.

Please follow and like us:

About admin

Check Also

বাছুরের ডায়রিয়ার কারণ

Couses of diarrhea in neonatal rumenants 🔷Bacterial: 🔸Escherichia coli 🔸Salmonella spp. 🔸Campylobacter fecalis 🔸Campylobacter coli …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!