Breaking News

কুড়া বা রাইস মিল বাই প্রডাক্টঃ


কুড়া বা রাইস মিল বাই প্রডাক্টঃ নিচের টি কুড়া

#গ্রামের  হলার মেশিনে ভাঙ্গানো ধানের বাই প্রডাক্ট হল কুড়া যাকে আমরা লোকাল কুড়া বলে থাকি। লোকাল কুড়ার পুষ্টিগুন কি তা সঠিক করে বলা সম্ভব নয়। তা জানতে হলে আপনার কাছে যে কুড়া আছে তা টেস্ট করাই হলো একমাত্র ব্যবস্থা।

#কারণ আপনার কুড়ার পুষ্টিগুন যে বিষয় গুলোর উপর নির্ভর করে কম বেশি হতে পারে তা হলোঃ
১. কোন জাতের ধান থেকে উৎপন্ন হচ্ছে?
২. ধান কি দুই বার ভাঙ্গানো হচ্ছে নাকি একবার?
৩. ধান ভাঙ্গানোর সময় তুষ কি বেশি থাকতেছে নাকি ভেঙ্গে মিহি হচ্ছে?
৪. তুষ চেলে ফেলে দিচ্ছেন নাকি তুষ সহ খাওয়াচ্ছেন?
৫. কুড়ায় কি পরিমাণ খুদ আছে? কারণ অনেকেই কুড়া থেকে খুদ আলাদা করে ফেলে।
৫. কুড়া কি ইউরিয়া প্রসেস করে খাওয়াচ্ছেন নাকি সরাসরি?

#আপনি যদি হলার মেশিনে সিদ্ধ ধান ভাঙ্গিয়ে শুধু চাল আলাদা করে যে কুড়া পাবেন অর্থাৎ কুড়া থেকে কোন প্রকার উপাদান যেমন খুদ বা তুষ না বাহির করে যে কুড়া পাবেন তার সম্ভাব্য পুষ্টিগুন হলঃ
১. ড্রাই ম্যাটার ৯০%
২. TDN 40-42%
৩. শক্তি ৭.৩ মেগাজুল/কেজি
৪. NEm 0.91, NEg 0.37 NEl. 81 Mcal/Kg
৫. প্রোটিন 7%
৬. ক্রোড ফ্যাট ৫.৭%
৭. ফাইবার ৩২%
৮. অ্যাশ ১১.৫%
৯. ক্যালসিয়াম ০.৪%
১০. ফসফরাসঃ ০.৩১%

#পর্যালোচনাঃ
১. কোনটা কুড়া বা রাইস ব্রান তা অনেকেই ভুল করেন। দুটির মধ্যে পুষ্টিগুনের অনেক পার্থক্য। রাইস ব্রানে প্রোটিন থাকে ১২-১৫% পর্যন্ত যেখানে কুড়ায় মাত্র ৭%
২. রাইস ব্রানের শক্তি ১০.৫ মেগাজুল/কেজি এবং কুড়ার ৭.৩ মেগাজুল/কেজি। রাইস ব্রানের তুলনায় কুড়ার শক্তি ৫ মেগাজুল কম হলেও NEm অর্ধেক, NEg তিন ভাগের একভাগ NEl অর্ধেক। অর্থাৎ ১ কেজি রাইস ব্রানে তুলনায় ১ কেজি কুড়ায় মেইটেনেন্স এনার্জি পাবেন অর্ধেক, গ্রুথ পাবেন তিন ভাগের একভাগ এবং দুধ উৎপাদন শক্তি পাবেন অর্ধেক।
৩. যদি তুষ বাহির করে ফাইবার কমাতে পারেন,
#তবে ২০% এর বেশি ফাইবারে প্রোটিন পাবেন ৮.৫%
#১১-২০% ফাইবার থাকে তবে প্রোটিন পাবেন ১২%+
#৫-১১% ফাইবার হলে প্রোটিন পাবেন ১৪%
#কুড়া থেকে ফাইবার বাহির করেই রাইস ব্রান তৈরি করা হয়।
#এখন আপনি যদি উক্ত কুড়া থেকে খুদ আলাদা করে ফেলেন তাহলে শক্তি ও প্রোটিন দুটিই কমে যাবে সাথে ফাইবার বেড়ে যাবে।
#আপনি যদি তুষ আলাদা করে ফেলেন তাহলে শক্তি, প্রোটিন ও ফ্যাট তিনটিই বৃদ্ধি পাবে এবং ফাইবার কমবে। মনে রাখবেন তুষের মধ্যে যে ফাইবার থাকে তা মূলত অহজম যোগ্য লিগনিন। তাই তুষ আলাদা করে ফেলা উত্তম। তুষ সাধারণত হজম না হয়ে গোবরের সাথে বেড়িয়ে আসে।

#ব্যবহার মাত্রাঃ
আপনার দানাদার রেশনের ১০% কুড়া ব্যবহার করতে পারেন। কোন কোন ক্ষেত্রে TMR এর প্রোটিন ও শক্তি গণনা করে সর্বোচ্চ ১৫% পর্যন্ত দেওয়া যেতে পারে।

#উপসংহারঃ
কুড়া ফাইবারের অন্যতম একটি উৎস। তবে কুড়া আপনার রেশনের ১০% এর বেশি ব্যবহার না করা উত্তম। কিন্তু বাজারে যে কুড়া পাওয়া যায় তা বেশির ভাগই অটো মিলের তুষ পাউডার করে বিক্রি করা হয় যার মান খুবই খারাপ। আমি তাও শোসেছি যে স মিলের গুড়া তুষের সাথে মিশিয়ে কুড়া তৈরি করা হয় যা খুবই ক্ষতিকর। তাই কুড়া ব্যবহারে সাবধান হউন। উল্লেখ্য যে, খড়ের তুলনায় কুড়ার পুষ্টিগুন ভাল। আর যদি ইউরিয়া ট্রিটমেন্ট করে খাওয়ানো যায় তবে আরো শক্তি বৃদ্ধি পায়।

AH Joarder
Joarder.a@gmail.com

Please follow and like us:

About admin

Check Also

সূর্যমুখী ফুল বা সানফ্লাওয়ার, দুধাঁলো গাভীর জন্য একটি উৎকৃষ্ট খাদ্য!

সূর্যমুখী ফুল বা সানফ্লাওয়ার, দুধাঁলো গাভীর জন্য একটি উৎকৃষ্ট খাদ্য! —————————————————– আমরা অনেকেই হয়তো জানি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!