Breaking News

বার বার/প্রতিব্যাচে গাম্বোরু হচ্ছে ? সমাধান কি

বার বার গাম্বোরু হচ্ছে ? সমাধান কি.

নোটঃগাম্বোরো যে কোন পরিবেশে,যে কোন পি এইচে,সে কোন সিজনে প্রায় ৩ মাস বেচে থাকতে পারে যদি ঠিক ভাবে পরিস্কার করা হয়।যদি ঠিক মত পরিস্কার/ব্যবস্থাপনা না করা হয় তাহলে সারা বছর ফার্মে থাকবে এবং হবার সম্বাবনা থাকে।

নিচে কয়েকটি পয়েন্ট দেয়া আছে যত বেশি মানতে পারবেন তত ভাল হবে।

১।বিভিন্ন বয়সের মুরগি এক সাথে পালা যাবে না (একই সেডে বা ২৫ফিটের মধ্যে অন্য কোন সেড করা যাবে না,তবে একই বয়সের হলে সমস্যা নাই)

২।ফ্লোর টা সম্বব হলে পাকা করতে হবে,কাচা হলে উপর থেকে১/৪ ইঞ্চি মাটি তুলে ফেলে দিতে হবে ,গাম্বোরু হবার পর একবার তুললেই হবে।।

৩।খাবার ও পানির পাত্র পরিস্কার করে রোদে শুকাতে হবে,পর্দা,ওয়াল,বাল্ব,ব্রুডার পরিস্কার করতে হবে।সেডের বাহিরের ময়লা আবর্জনা থাকলে সেগুলো সরিয়ে ফেলেতে হবে বা পুড়িয়ে ফেলতে হবে  হোয়াইট ওয়াশ করতে হবে খাবার সোডা,তুতে,কেরোসিন,ব্লিচিং,চুন মিক্স করে পানির সাথে মিশিয়ে ফ্লোরে ও ওয়ালে/পিলারে ছিটিয়ে দিতে হবে।

পরিস্কারের নিয়ম গুলো মানতে হবে(বাচ্চা বিক্রির পর ২দিনের মধ্যে সেড পরিস্কারের চেস্টা করবেন।

সেডের আশপাশে যাতে ঝোপ ঝাড় না থাকে কারণ এসবের মধ্যে পোলামাকড় থাকে যারা গাম্বোরু জীবানূ ছড়ায়।তাই সেগুলো পরিস্কার করে নিবেন।

৪।সম্বব হলে৫০০ ফিটের মধ্যে ফার্ম থাকলে এক সাথে মুরগি তুলতে হবে এবং একই নিয়মে সব করতে হবে।প্রয়োজনে পাশের খামারীর সাথে মিলে করবেন কারণ আমাদের দেশের ফার্ম গুলো কাছাকাছি অথচ মালিক আলাদা।মিলিতভাবে সব ভ্যাক্সিন এক নিয়মে করতে হবে যদি সম্বব হয়।।

৫.৮দিনে আই বি ডি এক্সট্রিম ভ্যাক্সিন (ইলাংকো কোম্পানী) খাওয়াতে হবে.৭দিন পর ১৫দিনে আবার দিতে হবে।

৬।লিটার ভাল রাখতে হবে,১ম ১০-১৫দিন তূষ দিতে হবে।

৭।পর্দা সিস্টেম ঠিক করতে হবে,পর্দা নিচ থেকে উপরে তুলার সিস্টেম করতে হবে।

ভিতরে গ্যাস করা যাবে না।

৮।ভাল কোম্পানীর বাচ্চা ও খাবার দিতে হবে।

৯।ব্রুডিং টা ভাল করতে হবে।

১০।ফার্ম টির অবস্থান,উচ্চতা,লোকেশন ঠিক থাকতে হবে।

১১. একবার গাম্বোরু হয়ে গেলে ২-৩ মাস গ্যাপ দিয়ে বাচ্চা তুলতে হবে,পরের ব্যাচ গুলো ১৫দিন গ্যাপ দিয়ে তোলা যাবে

১২।আপনি যদি উপরের সিস্টেম অনুযায়ী চালাতে পারেন তাহলে ভাল

অনেকেই আছে ট্রেনিং/পরামর্শ নিয়ে ফার্ম করতে চান এবং পরিচালনা করতে চান তাদের জন্য আছে পোল্ট্রি খামারী ট্রেনিং গ্রুপ। মেম্বার হতে রেজিস্টেশন করতে হবে ০১৭১৭৩০০৭০৬।মেবার হবার পর আপনাকে প্রতি সপ্তাহে কি করতে হবে তা বলে দ্যা হবে এবং প্রয়োজনে চিকিৎসা লাগলে দেয়া হবে.৬মাস আপনি সব ধরণের সুযোগ সুবিধা পাবেন।কল দিতে পারবেন।

আপনার ফার্মে মাসে যে ৩০০০-৭০০০ টাকা অতিরিক্ত খরচ হয় তা কমে যাবে তাই রেজিস্টেশন করে মেম্বার হয়ে যান।

Please follow and like us:

About admin

Check Also

খামারীর কৃপণতা এবং অপচয় যা ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়ায়।

খামারীর কৃপণতা যা তাকে লসে ফেলে দেয়,খামারীর অপচয় যা লসে ফেলে দেয় বা ক্ষতির কারণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!