Breaking News

ডার্ট গান দিয়ে পশু নিয়ন্ত্রণের পদ্ধতি

ডার্ট গান হিসেবে আমরা DAN-INJECT JM STANDARD rifle এবং এনিস্থেটিক এজেন্ট হিসেবে Xylazine(১ সিসি) প্রয়োগ করেছিলাম। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতায় ঢাকা, চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে এই ধরনের মোট তিনটি গান আছে।
ডারটিং কি?
ডারটিং হচ্ছে মূলত দূর থেকে ইঞ্জেকশন প্রয়োগের একটা পন্থা। মোটা দাগে দূর থেকে কোন প্রাণিকে ঔষধ, টিকা অথবা এনেস্থেটিক প্রয়োগের প্রক্রিয়া।
ডারটিং কেন করা হয়?
যেকোন প্রাণিতে বিশেষ করে বন্য প্রাণিতে ডারটিং করা হয়। চিড়িয়াখানায় অসুস্থ প্রাণিদের ঔষধ প্রয়োগ ও টিকাদান, খাঁচা থেকে বের হয়ে যাওয়া প্রাণি ধরতে, আহত বন্যপ্রাণি উদ্ধার ও চিকিৎসা, উত্তেজিত প্রাণিকে শান্ত করা ছাড়াও আরো অনেক ক্ষেত্রে ডারটিং করা হয়। ভেটেরিনারিয়ান, ওয়াইল্ডলাইফ এক্সপার্ট, জু ভেট টেকনিশিয়ান এমনকি খামারিদেরও মাঝে মাঝে ডারটিং এর প্রয়োজন পড়ে।
যদি কোন ভেটেরিনারিয়ানের ডারটিং টেকনিক গুলো আয়ত্তে থাকে তবে তার জন্য চিড়িয়াখানা কিংবা ওয়াইল্ডলাইফ নিয়ে কাজ করা অনেক সহজ হয়ে যায়। তাই এর সম্পর্কে জানা, এটা কিভাবে প্রস্তুত ও ব্যবহার করতে হয় এ ব্যাপারে একজন ভেটের সম্যক জ্ঞান রাখা উচিত।
ডারটিং এর প্রয়োজনীয় উপকরণ
ডারটিং এর জন্য মূলত দুই ধরনের যন্ত্র ব্যবহার করা হয়- ব্লোপাইপ ও ডার্ট গান। এছাড়াও পোল সিরিঞ্জ ব্যবহার করা হয়। কিভাবে, কত দূরত্বে, কত বেগে নিখুঁতভাবে ডারটিং করতে হবে তার উপর নির্ভর করে একেক ধরনের যন্ত্র ব্যবহার করা হয়।
ডার্ট নিক্ষেপ করার কিছু পদ্ধতি আছে।
১। ব্লোপাইপ- বাতাস বা গ্যাস দিয়ে এটা চালাতে হয়। দুই ধরনের ব্লোপাইপ আছে- লাঙ্গ পাওয়ারড পাইপ, এয়ার/গ্যাস পাওয়ারড পাইপ।
(ক) লাঙ্গ পাওয়ারড পাইপ- ২ মিটার লম্বা একটা বা দুইটা অ্যালুমিনিয়ামের টিউব দিয়ে এ ব্লোপাইপ তৈরি। এর একপ্রান্ত মুখের সাথে লাগিয়ে সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে ফু দিতে হয়। সাধারণত অল্প দূরত্বে (২০ মিটারের কম) এবং ৩ মিলি ড্রাগ প্রয়োগের জন্য এটা ব্যবহার করা হয়। এক্ষেত্রে ডার্টের ওজন ও গতি কম থাকায় কম মাংসপেশিযুক্ত যায়গায় ডারটিং করলেও পশু ব্যথা কম পায়।
(খ) কম্প্রেসড এয়ার/গ্যাস পাওয়ারড পাইপ- টিউবের সাথে একটা পিস্তল গ্রিপ সংযুক্ত থাকে। কম্প্রেসড এয়ার পাওয়ারড এর ক্ষেত্রে হোস পাইপের মাধ্যমে একটা ফুট-পাম্প পিস্তলটির সাথে লাগানো থাকে এবং গ্যাস পাওয়ারড পাইপের ক্ষেত্রে পিস্তলের সাথে একটি কার্বন ডাই অক্সাইড কার্টরিজ লাগানো থাকে। উভয়ক্ষেত্রে ম্যানোমিটারের সাহায্যে পিস্তলের ভেতরের চাপ মাপা হয়। কি পরিমান ড্রাগ কত দূর থেকে প্রয়োগ করা হবে তার উপর নির্ভর করে পিস্তলের ভেতরে গ্যাসের চাপের তারতম্য ঘটানো হয়। সাধারণত ৩০ মিটার দূরত্বে এবং ১০ মিলি ড্রাগ প্রয়োগের জন্য এটি ব্যবহার করা হয়। এ ব্লোপাইপ দিয়ে নীরবে ডারটিং করা যায় বলে অতিচঞ্চল প্রাণির ক্ষেত্রে উপযোগী।
২। ডার্ট গান- ডার্ট গান তিন মডেলের হয়, রাইফেল, শটগান ও পিস্তল। এছাড়া তিনটি উপায়ে ডার্ট গান পরিচালনা করা যায়, .২২ ক্যালিবার ব্ল্যাঙ্ক কার্টরিজ, কম্প্রেসড কার্বন ডাই অক্সাইড বা ফুট পাম্পের মাধ্যমে বাতাস সরবরাহ করে।
(ক) কম্প্রেসড কার্বন ডাই অক্সাইড প্রজেক্টর সাধারণত ৭০ মিটার দূরত্ব পর্যন্ত নিখুঁতভাবে ডার্ট নিক্ষেপ করতে পারে। সর্বোচ্চ ২৫ মিলি ড্রাগ ১২০ মিটার দূরত্বে এবং বিস্তীর্ণ এলাকায় ডারটিং এর জন্য রাইফেল ব্যবহার করা হয়, জায়গা ছোট হলে পিস্তল।
ডারটিং রাইফেলের অংশগুলো হচ্ছে ব্যারেল, টেলিস্কোপ, ম্যানোমিটার, কার্বন ডাই অক্সাইড হোল্ডার, কার্বন ডাই অক্সাইড কার্টরিজ, ডার্ট পজিশনিং পিন, রেঞ্চ
এবার আসি আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে।
ডার্ট, যেখানে ড্রাগ বা এজেন্ট লোড করে নিক্ষেপ করা হয়।
ডার্টের অংশগুলো হচ্ছে নিডেল, স্লীভ, সিরিঞ্জ ব্যারেল, প্লানজার, সিরিঞ্জ কানেক্টর, ফায়ারিং পিন, ইনজেশন সল্যুশন, টেইল পিচ, ভেনটিং পিন, সেইফটি কেপ, স্টেবিলাইজার।
ডার্ট দুই ধরনের হতে পারে-
১) প্রেসারাইজড গ্যাস ড্রাইভার ও
২) এক্সপ্লোসিভ চার্জ ড্রাইভার।
সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ডার্টের মধ্যে ইনজেশন সল্যুশন লোড করা, তবে এটি লিখে প্রকাশ করা কস্টসাধ্য। তাই এর জন্য ইউটিউবের সাহায্য নেওয়ার অনুরোধ রইলো।
এনেস্থেটিক এজেন্ট ফর ডারটিংঃ
বড় তৃণভোজী প্রাণির জন্য-
• Opioid + Alpha-2 agonist
• Opioids- Etorphine, (কিন্তু Fentanyl, Carfentanyl and thiafentanyl ও ব্যবহার করা যায়।)
• Alpha-2 agonists – Xylazine, Detomidine, Medetomidine
• Opioid + alpha-2 agonist + azaperone ও ব্যবহার করা যায়।
মাংসাশী প্রাণির জন্য
• Benzodiazepine + Ketamine
• Benzodiazepines – Midazolam, Diazepam
সংক্ষেপে লেখার চেষ্টা করলাম। ভুল হলে ক্ষমাপ্রার্থী।

ডা. মোহাম্মদ ফয়সাল
ডিভিএম, এম এস ফেলো (সিভাসু)
লাইভস্টক এক্সটেনশন অফিসার, চন্দনাইশ, চট্টগ্রাম।

 

Please follow and like us:

About admin

Check Also

বইঃসহজে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা (লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালী)।বইটি কেমন জানতে ভিজিট করুন এবং সূচী দেখুন।

সহজে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা (লেয়ার,ব্রয়লার ও সোনালী) ডা মো সোহরাব হুসান (ট্রেইনার এবং পোল্ট্রি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!