Breaking News
ইনকিউবেটরের তাপমাত্রা
ইনকিউবেটরের তাপমাত্রা

ইনকিউবেটরের তাপমাত্রা

আমরা জানি ডিমে সঠিক তাপ বজায় রাখলে ডিমের ভিতরে ভ্রুনের কোষ গুলোর স্বভাবিক বিভাজন হয় এবং সময় মত ভ্রুন বেড়ে ওঠে ও ডিম ফুটে বাচ্চা বের হয়।

আবার ডিমে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশী তাপ দেয়া হলে সেক্ষেত্রে ডিম টা একটু তাড়াতড়ি ফোটে, এবং নির্দিষ্ট পরিমান তাপের চেয়ে যদি কম তাপে ডিম টি রাখা হয় সে ক্ষেত্রে ডিম একটু দেরিতে ফোটে, নিদৃষ্ট তাপের চেয়ে যদি কম তাপে বা বেশি তাপে রেখে ডিম ফুটানো হয় তবে ভ্রুন মৃত্যুর হার বেশি হয়, হেচিং রেট কম আসে, এবং যে বাচ্চা গুলি   নির্দিষ্ট তাপের চেয়ে কম অথবা বেশী তাপে ফুটানো হয় সেই বাচ্চা গুলি স্বাভাবিক বাচ্চার চেয়ে একটু দুর্বল হয়।


এখন একটু গভীর ভাবে চিন্তা করি, হাঁসের ডিম ২৮ দিনে ফুটে, এবং মুরগীর ডিম ২১ দিনে ফুটে।
তা হলে এখনে লক্ষনীয় যে ইনকিউবেটরের ভিতর হাঁসের ডিম এবং মুরগী ডিম এক সাথে দিয়ে একটা  নির্দিষ্ট তাপ দিলেও হাঁসের ডিম এবং মুরগীর ডিম এক সাথে ফুটবেনা, তার মানে জিনগত ভাবেই এদের ভ্রুনের কোষ গুলো বিভাজনের ক্ষেত্রে একটু পার্থক্য আছে, যার কারনে তাপ  নির্দিষ্ট দিলেও বাচ্চা আগে পিছে ফুটে।


যেহুতু সকল ধরনের ডিমে একটা  নির্দিষ্ট তাপ দিলেও বাচ্চা এক সাথে ফুটবেনা, অর্থাৎ সকল পাখির ডিমের ভ্রুনের কোষ গুলো বিভাজনের কিছু পার্থক্য আছে, আর পার্থক্য যদি থাকে তাহলে বৈজ্ঞানিক ভাবে বিশ্লেষণ করলে প্রত্যেক পাখি জাতীয় প্রানীর ডিমেরর ভেতরে ভ্রুনের কোষগুলো বিভাজনের জন্য তাপের কিছু পার্থক্য অবশ্যই আছে, অবশ্য পার্থক্য টা খুবই সামান্য।

সঠিক তাপ টাই সেই ভ্রুনের জন্য আদর্শ তাপ। আজকে তেমনি একটি তাপের ব্যপারে আমরা জানবে কোন প্রানীর ডিমে কত টুকু তাপ আদর্শ যদিও এই তাপের পার্থক্যটা খুবই সামান্য তবুও জেনে রাখা ভালো।

*মুরগীঃ

স্বাভাবিক ভাবে মুরগীর ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ২১ দিনে,এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ ফারেনহাইট বা ৩৭.৭ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা ১৮দিন পর থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

* টার্কিঃ

স্বাভাবিক ভাবে টার্কির ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ২৮ দিনে, এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ৯৯ ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রার চেয়ে সমান্য একটু কম বেশী হয় তবে ৩৭.৭ দিলেও চালবে কারন তাপ সার্ক্লুয়েশনের সময় সেই সামান্য পার্থক্য পুরন হবে। টার্কি ডিমে ইনকিউবেটরে তাপ দেবার ২৫ দিন পর থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্তডিম ঘুরানো যাবেনা।

*হাঁসঃ

স্বাভাবিকভাবে হাঁসের ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ২৮ দিনে এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ২৫ থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

*মাক্সোভি বা সাদা চিনা হাঁসঃ

স্বাভাবিকভাবে মাস্কোভির ডিম ফুটে বাচ্চাবের হবে ৩৫ থেকে ৩৭দিনে এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ৩১ দিন থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

*রাজহাঁসঃ

স্বাভাবিকভাবে রাজহাঁসের ডিম ফুটে বাচ্চাবের হবে ২৮ থেকে ৩৪ দিনে এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ৯৯ ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ২৫ দিন থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

*তিতিরঃ

স্বাভাবিকভাবে তিতিরের ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ২৩ থেকে ২৮ দিনে এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ২৫ থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

*কোয়েলঃ

স্বাভাবিকভাবে কোয়েলের ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ১৭ দিনে(সাদা কোয়েল একটু দেরিতে ফোটে) এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ১৫থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।

*ময়ূরঃ

স্বাভাবিকভাবে ময়ূরের ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে ২৮থেকে ৩০ দিনে এটির জন্য আদর্শ তাপ হচ্ছে ১০০ফ্যারেনহাইট বা ৩৭.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপ মাত্রা, ডিম ঘুরানো যাবেনা শেষের ২৫ থেকে ডিম ফুটার আগে পর্যন্ত।
তাহলে বোঝা গেলো ৩৭.৭ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপ ই হচ্ছে প্রায় সকল ডিমে আদর্শ তাপমাত্রা, যদিও ফ্যারেনহাইটে মাপতে গেলে যদিও সামান্যএকটু কম বেশি হয়, তবুও ইনকিউবেটরের ভেতরে তাপ সার্ক্লুয়েশনের কারনে এটিকে সমান বলে গণ্য করা হয়।

লেখকঃআব্দুল ওহাব(01746609220)

Please follow and like us:

About admin

Check Also

হ্যাচারী

হ্যাচারীতে হ্যাচিং বাচ্চা্য় কি কি ত্রুটি হয়,কারণ এবং সমাধান

হ্যাচারীতে হ্যাচিং বাচ্চা্য় কি কি ত্রুটি হয়,কারণ এবং সমাধান ১।ভ্রূণ  মারা যাওয়া কারণ প্যারেন্টে সুষম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!