Breaking News
আর্দ্রতা শোষণের উপায়
আর্দ্রতা শোষণের উপায়

ইনকিউবেটরের ভিতর বাতাসের আর্দ্রতা শোষণের উপায়

ইনকিউবেটরে ডিম দেবার পর থেকে ডিম ফুটার ৩/৪দিন আগে পর্যন্ত ইনকিউবেটরের ভিতর  আর্দ্রতা কম রাখতে হয়, এবং শেষের তিনদিন আদ্রতা একটু বেশি রাখতে হয়,অর্থাৎ বেশির ভাগ দিনগুলোতে আর্দ্রতা কমই রাখতে হয়।

কিন্তু আমাদের দেশে বাতাসের   আর্দ্রতা বেশিরভাগ সময় অনেক বেশি থাকে যেটা সেটারে রাখা ডিমের জন্য ভীষণ ক্ষতিকর, তাই বেশি ভাগ ইনকিউবেটর চালককে   আর্দ্রতা নিয়ে চিন্তিত থাকতে হয়,

আদ্রতার ব্যাপারে যারা উদাসীন থাকে তাদের ইনকিউবেটর গুলোতে হেচিংরেট কম আসে, কুলিং সিষ্টেমে বাতাস থেকে আর্দ্রতা ঝড়িয়ে সেই  আর্দ্রতাশূণ্য ইনকিউবেটরের ভিতরের পাঠানো ডিভাইজ গুলো অনেক ব্যয় বহুল, তাই আমাদের দেশের বেশির ভাগ ইনকিউবেটর গুলোতে   আর্দ্রতা শোষনের তেমন কোনো কর্যকারি প্রযুক্তি নেই বললেই চলে।

তাই আদ্রতাকে হাত দিয়ে বিভিন্ন পদ্ধতীতে নিয়ন্ত্রনে আনতে হয়।
যেহেতু সেটারে ডিম বেশিদিন রাখা হয় এবং সেটারে কম  আর্দ্রতা রাখা জরুরী এদিকে বাহিরের আদ্রতা বেশিরভাগ সময় বেশি থাকে, তাই খামারি ভাইদের বেশিরভাগ দিন গুলোতে  আর্দ্রতাশোষণ নিয়েই ব্যস্ত থাকতে হয়।

আর্দ্রতা শোষনের বেশ কিছু কার্যকরি উপায় রয়েছে সেই উপায় গুলো জানার আগে আপনার ইনকিউবেটরে ভিতরে বাহির থেকে বাতাস যাবে এমন পথ গুলো সাধ্যমত বন্ধ করুন তাহলে একবার  আর্দ্রতা কমিয়ে নিলে সহজে আর বাড়বে না।

*বরফ দিয়ে  আর্দ্রতা শোষণ করানো যায়, তবে বরফ দিয়ে   আর্দ্রতা শোষণের সময় অবশ্যই একটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে সেটা হচ্ছে বাতাসের তাপমাত্রা অপেক্ষা বরফের তাপমাত্রা সবসময় কম থাকতে হবে তবেই বাতাসের   আর্দ্রতা শোষিত হবে।

* চুন অথবা চক মূলত ক্যলসিয়ামকার্বনেট এটা বাতাস থেকে   আর্দ্রতা শোষণ করে,

কিন্তু চুন বা চক দিয়ে আদ্রতা শোষণ করানোর আগে প্রথমে আপনাকে ভাবতে হবে যেটার সাহায্যে বাতাসের আর্দ্রতা  শুষে নেয়া হবে সেটা ভিজে যাবে, তাহলে চক যদি   আর্দ্রতা শোষণ করে তবে সেই চক ভিজে যাবে,

কিন্তু আবার যদি ভিজা চক শুকানো হয় তবে চকে থাকা পানি বাতাসে মিশে যায়, তাহলে চক দিয়ে   আর্দ্রতা শোষনের সময় লক্ষ রাখতে হবে চক গুলো যেনো বেশি তাপে না রাখা হয়,

ইনকিউবেটরের ভিতরে যেখানে অন্যস্থান অপেক্ষা কম তাপমাত্রা সেখানে চক রেখে সেখানে বাতাস প্রবাহিত করলে অনেক ভালোভাবে   আর্দ্রতা শোষিত হবে।

*বালি দিয়েও   আর্দ্রতা কামনো যায়, ইনকিউবেটরে ভিতরে ‘বালি’ একটা বাটির মধ্যে ছড়িয়ে রাখলে  আর্দ্রতা শোষিত হবে।

* মুড়ি, বা যেকোনো মচমচে জিনিষ যেটা খোলা স্থানে রাখলে আর মচমচে ভাব থাকেনা, সেইধরনের জিনিষ দিয়ে আদ্রতা শোষণ করা যায়।
তবে যেটা দিয়েই   আর্দ্রতা শোষণ করা হোক না কেনো সব সময় দুইটা বিষয় লক্ষ রাখতে হবে,

*প্রথমত ইনকিউবেটরের ভিতরের বাতাস যেনো বাহিরে বের না হয়,এবং বাহিরের বাতাস যেনো ইনকিউবেটরের ভিরতে না যায়,

সেই জন্য যতটা সম্ভব ইনকিউবেটরের ভিতরে বাতাস যেতে পারে এমন ফুটো গুলো বন্ধ করে রাখতে হবে,এবং ইনকিউবেটরের ভিতরের সব গরম পানি সরিয়ে ফেলতে হবে।

*দ্বিতীয়ত যার মাধ্যমে আদ্রতা শোষণ করানো হবে, সেটা ভিজে যাবে, আর আমার জানি ভিজা বস্তু অধিক তাপে রাখলে শুকিয়ে যাবে অর্থাৎ সেটা আবার আদ্রতা তৈরি করলো, তাই আদ্রতা শোষণের সময় ইনকিউবেটরের যে স্থানে অন্য স্থান অপেক্ষা কম তাপ থাকে সেখানে রাখবেন। তবেই কার্যকারি ভাবে আদ্রতা শোষিত হবে।
নিচের ছবিটাতে ছোট্ট একটা পরিক্ষা করেছি আদ্রতা শোষনের, তাপমাত্র একই রেখে আদ্রতা কমিয়ে এনেছি, বাটির মধ্যে আদ্রতা শোষক হিসেবে মুড়ি রেখেছি।
HTC-1 এর হিমিউডিটি সেন্সর ছোট তার দিয়ে বাহিরে বের করেছি, তারটা ছোট তাই রিডিং ঠিক আছে, তবে কেউ সেন্সর বের করতে চাইলে অবশ্যই অভিজ্ঞদের পরামর্শ নিবেন।

লেখকঃআব্দুল ওহাব
Please follow and like us:

About admin

Check Also

হ্যাচারী

হ্যাচারীতে হ্যাচিং বাচ্চা্য় কি কি ত্রুটি হয়,কারণ এবং সমাধান

হ্যাচারীতে হ্যাচিং বাচ্চা্য় কি কি ত্রুটি হয়,কারণ এবং সমাধান ১।ভ্রূণ  মারা যাওয়া কারণ প্যারেন্টে সুষম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Translate »
error: Content is protected !!